1. [email protected] : Reporter : Reporter
  2. [email protected] : MJHossain : M J Hossain
  3. [email protected] : isaac10j54517 :
  4. [email protected] : janetbaader69 :
  5. [email protected] : katherinflower :
  6. [email protected] : makaylafriday8 :
  7. [email protected] : Rakib Hasan : Rakib Hasan
  8. [email protected] : meredithbriley :
  9. [email protected] : Muhibullah Chy : Muhibullah Chy
  10. [email protected] : olamcevoy1234 :
  11. [email protected] : roseannaoreily4 :
  12. [email protected] : sebastianstanfor :
  13. [email protected] : tangelamedina :
  14. [email protected] : teenaligar6 :
  15. [email protected] : xugmerri6352 :
  16. [email protected] : yzvhildegarde :

শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
চট্টগ্রাম আইনজীবী বিজয়া সম্মিলন পরিষদ অসম্প্রদায়িক চেতনার ধারকঃ অ্যাটর্নি জেনারেল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওয়েষ্ট ইন্ডিজকে ২-০ তে হারিয়ে বিশ্ব রেকর্ড করলো বাংলাদেশ চিতলমারী সায়েন্স ক্লাবের জেলা পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন ঝিনাইদহ হরিশংকরপুরে আ’লীগের জনসভায় এম,পি সমি সিদ্দিকী রাজারহাটে মোবাইল কোর্টে বাঁধা দেয়ায় মামলা,ব্যবসায়িদের মানব বন্ধন কালীগঞ্জে মাহতাব উদ্দীন ডিগ্রী কলেজ ৯৪ পুর্ণমিলন অনুষ্ঠিত মুজিব শতবর্ষ ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্টে পাবেলের পক্ষ থেকে ফুলের শুভেচ্ছা বিনিময় উইন্ডিজের বিপক্ষে টাইগারদের সিরিজ জয় ঋণের দায়ে জিল বাংলা চিনি কল ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে দেওয়ানগঞ্জ কিশোরগঞ্জ সদর ইউপির আ’লীগ নেতাকর্মীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
আড়াই কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ,প্রধান শিক্ষককে মাউশির নোটিশ

আড়াই কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ,প্রধান শিক্ষককে মাউশির নোটিশ

Print Friendly, PDF & Email

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উৎপল কান্তি সরকারের বেতন-ভাতার সরকারি অংশ কেন বন্ধ করা হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। সরকারি বরাদ্দসহ বিদ্যালয়ের নিজস্ব আয়ের প্রায় আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ, শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম এবং বিদ্যালয়ের মাঠে গরু-ছাগলের হাট বসানোর অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় এ নোটিশ পাঠিয়েছে মাউশি।জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ডিইও) শামসুল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হযরত আলীর অভিযোগের ভিত্তিতে উপপরিচালকের কার্যালয়, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা, রংপুর অঞ্চলের দাফতরিক নির্দেশনায় তদন্ত করে প্রতিবেদন দেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা। এছাড়াও উপজেলা প্রশাসনের তদন্তেও অভিযোগের সত্যতা পান সংশ্লিষ্ট তদন্ত কর্মকর্তা।

ডিইও জানান, তদন্তে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে কিছু অনিয়মের সত্যতা পাওয়া গেছে। তদন্ত কাজের শুরুতে প্রধান শিক্ষক তাৎক্ষণিক কোনও কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। তার কাছে অভিযোগের বিপরীতে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চাইলে তিনি দুই দফা সময় আবেদন করেন। কিন্তু পুনর্নির্ধারিত সময়ে তিনি কাগজপত্র জমা না দিয়ে উল্টো তদন্তকারী কর্মকর্তাকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন।

ডিইও আরও বলেন, ‘ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎসহ দুর্নীতির অভিযোগ থাকলেও তিনি তদন্তকারী কর্মকর্তাকে তদন্তে সহযোগিতা না করে সরকারি আদেশ অমান্য ও সরকারি কর্মকর্তাকে অবজ্ঞা করেছেন। এজন্য তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশ করা হয়েছিল। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ওই শিক্ষকের বেতন-ভাতার সরকারি অংশ কেন বন্ধ করা হবে না তার ব্যাখ্যা আগামী দশ কর্মদিবসের মধ্যে অধিদফতরে দাখিলের জন্য নোটিশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)।’

 
hostseba.com
 

এর আগে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হযরত আলীর অভিযোগের ভিত্তিতে উলিপুর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক গঠিত তদন্ত কমিটিকে অসহযোগিতা করেন প্রধান শিক্ষক। সেই তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ এবং ২০০৪ সালের ৫ নং আইন (দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪) অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) মহাপরিচালক বরাবর প্রতিবেদন পাঠায় জেলা প্রশাসন।তবে এখনও ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের কোনও তদন্ত শুরু না হওয়ায় ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করেছেন শিক্ষক ও অভিভাবক মহল।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক উৎপল কান্তি সরকার জানান,তিনি এখনও নোটিশ পাননি।তবে বরাবরের মতো তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত সব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন প্রধান শিক্ষক।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের অক্টোবর মাসে ম্যানেজিং কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একটি পর্যবেক্ষণ ও নিরীক্ষণ কমিটি করে দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের যাবতীয় আয়-ব্যয়ের প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। নিরীক্ষণ কমিটি তদন্ত করে প্রধান শিক্ষক উৎপল কান্তি সরকার ও সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলমের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের অনুকূলে সরকারি বরাদ্দ এবং বিদ্যালয়ের নিজস্ব আয়ের প্রায় আড়াই কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনে। সেই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে বর্তমান সভাপতি কার্যকর কোনও ব্যবস্থা না নিলে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও নিরীক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক হযরত আলী উপজেলা প্রশাসন এবং উপপরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা, রংপুর অঞ্চল বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন।

আপনার মতামত দিন

Tayyaba Rent Car BBC News Ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team