1. [email protected] : Reporter : Reporter
  2. [email protected] : MJHossain : M J Hossain
  3. [email protected] : isaac10j54517 :
  4. [email protected] : janetbaader69 :
  5. [email protected] : katherinflower :
  6. [email protected] : makaylafriday8 :
  7. [email protected] : Rakib Hasan : Rakib Hasan
  8. [email protected] : meredithbriley :
  9. [email protected] : Muhibullah Chy : Muhibullah Chy
  10. [email protected] : olamcevoy1234 :
  11. [email protected] : roseannaoreily4 :
  12. [email protected] : sebastianstanfor :
  13. [email protected] : tangelamedina :
  14. [email protected] : teenaligar6 :
  15. [email protected] : xugmerri6352 :
  16. [email protected] : yzvhildegarde :

শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:১৬ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
“ওয়ান বাংলাদেশ” রাঙ্গামাটিতে প্রথম বারের মত কমিটি গঠন কিশোরগঞ্জে মুজিব বর্ষের উপহার পেলেন ১৪০ গৃহহীন পরিবার শীতার্তদের মাঝে উষ্ণতা ছড়াল ‘মানিকছড়ি ব্লাড ডোনার্স এসোসিয়েশন’ মানিকছড়িতে সন্ত্রাসী হামলায় আহত মাদরাসা পরিচালক হরিণাকুণ্ডুতে নৌকার বিরুদ্ধে যাওয়া আ’লীগের তিন নেতা বহিস্কার বাগেরহাটে ফের ১৯টি হরিণের চামড়া উদ্ধার নড়াইলে ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে গৃহ প্রদান কর্মসুচির উদ্বোধন মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে ছড়িয়ে দিতে হবেঃ ড. অনুপম সেন হবিগঞ্জের ৩ পৌরসভায় বিএনপির জয়ের নেপথ্যে বাহুবলে মুুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ৩০টি ভূুমহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান
দুই সুপারের দ্বন্দ্ব,নতুন বই পায়নি দাসিয়ারছড়ার মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা

দুই সুপারের দ্বন্দ্ব,নতুন বই পায়নি দাসিয়ারছড়ার মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা

Print Friendly, PDF & Email

শাহিনুর রহমান শাহিন ফুলবাড়ী কুড়িগ্রামঃ সারা দেশে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সরকারি নতুন বই তুলে দিয়েছেন শিক্ষার্থীদের হাতে। কিন্তু ব্যতিক্রম হয়েছে বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়াএকমাত্র জাতীয়করণকৃত প্রতিষ্ঠান শেখ ফজিলাতুন্নেছা দাখিল মাদ্রাসায়। সেখানে দুই সুপারে দ্ব›দ্ব থাকার কারনে নতুন বই পায়নি তিন শতাধিক শিক্ষার্থীরা। প্রতিদিন র্ধনা দিয়াও বই না পেয়ে খালি হাতে ফিরে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।এতে বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েছেন ওই প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক ও সচেতনমহল ।

সরকারি নিদের্শনা অনুযায়ী পহেলা জানুয়ারী ওই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়ার কথা ছিল। অথচ সেখানে তিন দিন অতিবাহিত হলেও শিক্ষার্থীরা এখনো পায়নি বই । কবে বই পাবেন তাও নিশ্চিত নয়। ফলে হতাশায় ভোগছে বই না পেয়ে শিক্ষার্থীরা । দীর্ঘ দিন ধরে ওই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের জঠিলতার থাকার কারনে সুপারিনটেনডেন্ট আমিনুল ইসলাম ও সহ-সুপার শাহানুর আলমের মধ্যে দ্ব›দ্ব চলে আসছে। এ নিয়ে বিভিন্ন দপ্তরে পাল্টা পাল্টি অভিযোগ করা হয় ।তাদের মাঝে মিমাংশা না হওয়ায় দুইজনেই পৃথক ভাবে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের তথ্য দাখিল করেছেন বিভিন্ন অফিসে। এ জন্য বিপাকে পড়েন সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরের কর্মকর্তাগন ।
এদিকে গত তিন দিনেও বই না পেয়ে রোববার অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী শিরিনা খাতুন ও সোহাগ মিয়া বাড়ী ফিরে গেছেন । তারা জানান এরশাদুল হক স্যার নতুন বই দেওয়ার কথা বলে পুরাতন বই গুলো নিয়ে এসেছেন। এখনো নতুন বই পাইনি।
অভিভাবক মোফাজ্জল হোসেন জানান, সপ্তম শ্রেনীর বই নেয়ার জন্য আমার মেয়ে মেরিনা খাতুন মাদ্রাসায় বই নিতে এসে খালি হাতে ফিরে যায়। বাড়ী গিয়ে কান্নাকাটি করছিল নতুন বইয়ের জন্য।
এ বিষয়ে সুপার দাবীদার সহ-সুপার শাহানুর আলমের মুঠোফেনে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও কোন সারা পাওয়া যায়নি।
সুপারিনটেনডেন্ট আমিনুল ইসলাম জানান,শিক্ষার্থীদের নতুন বইয়ের চাহিদা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে জমা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বই পাওয়া যায়নি।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল হাই জানান, ওই প্রতিষ্ঠানে দুই ব্যক্তি সুপারিনটেনডেন্ট পদের দাবীদার। এ কারণে প্রকৃত সুপারিনটেনডেন্ট কে তার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আগামী ৭ জানুয়ারীর মধ্যে দাখিল করতে বলা হয়েছে। এ জন্যই দেড়ি হচ্ছে। তারা কাগজপত্র দাখিল করতে ব্যথ হলে আমি প্রতিষ্ঠানে গিয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন তুলে দিব।

আপনার মতামত দিন

Tayyaba Rent Car BBC News Ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team