1. [email protected] : Reporter : Reporter
  2. [email protected] : MJHossain : M J Hossain
  3. [email protected] : isaac10j54517 :
  4. [email protected] : janetbaader69 :
  5. [email protected] : katherinflower :
  6. [email protected] : makaylafriday8 :
  7. [email protected] : Rakib Hasan : Rakib Hasan
  8. [email protected] : meredithbriley :
  9. [email protected] : Muhibullah Chy : Muhibullah Chy
  10. [email protected] : olamcevoy1234 :
  11. [email protected] : roseannaoreily4 :
  12. [email protected] : sebastianstanfor :
  13. [email protected] : tangelamedina :
  14. [email protected] : teenaligar6 :
  15. [email protected] : xugmerri6352 :
  16. [email protected] : yzvhildegarde :

বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
অবশেষে ২য় বারের মত কাউন্সিলর হলেন আলহাজ্ব জহুরুল আলম জসিম মাল্টিপারপাস কোম্পানীর প্রতারনা, ১জন গ্রেফতার করেছে পিবিআই-গাজীপুর টঙ্গীতে গার্মেন্টস ভাংচুর- আসামী গ্রেফতার করেছে পিবিআই গাজীপুর রূপগঞ্জে মন্ত্রী গাজী ও পাপ্পা গাজী এবারও পিতা-পুত্র সেরা করদাতা বাহুবলে সমাজ সেবা অধিদপ্তর কর্তৃক অসহায় দরিদ্র মহিলাদের মাঝে হাস মুরগী বিতরণ ঝালকাঠির গাভা রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে সরোয়ার মল্লিকের বিকল্প নেই যশোর প্রেসক্লাবে ‘দৈনিক খুলনা’ পত্রিকার মতবিনিময় সভা প্রচারনার প্রথম দিনেই জনতার ভালোবাসায় সিক্ত মেয়র প্রার্থী আকবর হোসেন চৌধুরী যারা হলেন চসিক কাউন্সিলর নানীয়ারচরের বুড়িঘাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে জনপ্রিয় মুখ এ্যাডভোকেট মামুন ভুইয়া
একটি সেতুর অভাবে দুর্ভোগে ৫-৬ হাজার মানুষ

একটি সেতুর অভাবে দুর্ভোগে ৫-৬ হাজার মানুষ

Print Friendly, PDF & Email

রিপেন চাকমা: রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার দুর্গম জুরাছড়ি উপজেলায় ২নং বনযোগীছড়া ইউনিয়নের চকপতিঘাট গ্রামবাসীরা এগার বছর ধরে শলক খালের উপর বাঁশের সেতু নির্মাণ করে চলাচল করে আসছে। প্রতিবছর এসময়ে নিজস্ব অর্থায়নে বাঁশের সেতু নির্মাণ করেন গ্রামবাসীরা।

এই বাঁশের সেতু দিয়ে জুরাছড়ি সদর থেকে বনযোগীছড়া ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের জনগণ চলাচল করেন। প্রতিনিয়ত এই পথ দিয়ে শত শত লোকজন চলাচল করেন। বৃদ্ধ ও ছেলে-মেয়েদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এই বাঁশের সেতু। ঝুঁকি হলেও তাদের জন্য এই পথ ছাড়া আর কোনও চলাচলের রাস্তা নাই।
গ্রামবাসীদের দাবী সরকারি উদ্যোগে ব্রীজটি নির্মাণ করা হলে ৫-৬ হাজার জনগণ উপকৃত হবে। তাই সরকারিভাবে জনগণের স্বার্থে ব্রীজটি নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করে সেজন্য এলাকাবাসীর পক্ষে সরকারের কাছে সুদৃষ্টি কামনা করেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেত্রী মিসেস মিতা চাকমা।
চকপতিঘাট গ্রামের বৃদ্ধ জিতেন্দ্র চাকমা জানান যে, এই বাঁশের সেতুটি আমরা এগার বছর ধরে নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণ করে চলাচল করছি। আমাদের এই অসুবিধাটি কেউই দেখতে আসেননি। এই বাঁশের সেতু দিয়ে আমাদের গ্রামের প্রাইমারি বিদ্যালয়ের ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিদ্যালয়ে চলাচল করে। আর যকন কাপ্তাই হ্রদের পানি কমে যায় কেউ অসুস্থ হয়ে পরলে হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হয়না। তাদের এই চলাচলের অসুবিধাটি কবে শেষ হবে বলে জানান ৭০বছরের বৃদ্ধ লোক জিতেন্দ্র চাকমা।

একই গ্রামের আরও একজন বৃদ্ধ লোক কালাচান চাকমা বলেন- এই বাঁশের সেতুটি গ্রামের লোজনে কষ্ট করে নির্মাণ করে থাকে, কিন্তু বর্ষার মৌসুম আসলে পানিতে ভেষে যায় আমাদের একমাত্র চলাচলের মাধ্যম এই বাসের সেতুটি। তারপর আমাদের আরও বেড়ে যায় চলাচলের দুর্ভোগ। তাই তিনি চলাচলের সুবিধার্থে সরকারিভাবে ব্রীজ নির্মাণ করার জন্য সরকারের কাছে আকুল আবেদন করেন।

০২নং বনযোগীছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সন্তোষ বিকাশ চাকমা চাকমা বলেন- এই সেতুটি দীর্ঘ ১১বছর ধরে আমতলী এবং চকপতিঘাট এলাকাবাসী তাদের স্বউদ্যোগে নির্মাণ করে আসছে। এই সেতুটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ কারণ আমতলী আর চকপতিঘাটসহ কয়েকটি এলাকার প্রায় ৫-৬ হাজার লোকের যাতায়াতের মাধ্যম। সেতুটি না থাকায় চলাচলের জন্য খুবই অসুবিধা। তিনি এলাকার জনগণের যাতায়াতের সুবিধার্থে বর্তমান সরকারের কাছে সুদৃষ্টি কামনা করেন।

 
hostseba.com
 
আপনার মতামত দিন

Tayyaba Rent Car BBC News Ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team