1. seopay01833@gmail.com : Reporter : Reporter
  2. fhbadshah95@gmail.com : MJHossain : M J Hossain
  3. g21@exnik.com : isaac10j54517 :
  4. Janet-Baader96@picklez.org : janetbaader69 :
  5. tristan@miki8.xyz : katherinflower :
  6. makaylafriday74@any.intained.com : makaylafriday8 :
  7. mdrakibhasan752@gmail.com : Rakib Hasan : Rakib Hasan
  8. g39@exnik.com : meredithbriley :
  9. muhibbbc1@gmail.com : Muhibullah Chy : Muhibullah Chy
  10. olamcevoy@baby.discopied.com : olamcevoy1234 :
  11. g2@exnik.com : roseannaoreily4 :
  12. b13@exnik.com : sebastianstanfor :
  13. g29@exnik.com : tangelamedina :
  14. g24@exnik.com : teenaligar6 :
  15. b15@exnik.com : xugmerri6352 :
  16. g16@exnik.com : yzvhildegarde :

বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

সবার দৃষ্টি আকর্ষন:
বিবিসিনিউজ২৪ডটকমডটবিডি এর পেইজে লাইক করে মুহূর্তেই পেয়ে যান আমাদের সকল সংবাদ
ব্রেকিং নিউজ :
উলিপুরে বিট পুলিশিং এ ছবুর -প্রদীপের দ্বন্দের অবসান,পুলিশি সেবা জনগনের দোড়গোরায় ডবলমুরিংয়ে তরুণীকে ধর্ষণের দায়ে ধর্ষক চান্দুকে আটক করেছে পুলিশ অত্যাধুনিক অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ সহ ৩ পাহাড়ি সন্ত্রাসী আটক হাটহাজারীতে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে দুর্বৃত্তদের হামলায় অনুষ্ঠান বানচাল কোতোয়ালি থানা ছাত্রলীগ এর উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালিত দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী-ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী সিএমপি’তে অগ্নি নির্বাপণ ও উদ্ধার বিষয়ক মহড়া অনুষ্ঠিত সচিবালয়ে চাকুরী দেওয়ার নাম ও বিয়ে করে অর্থ হাতিয়ে নেওয়া যার পেশা যশোরে প্রকাশ্য দিবালোকে থানার পাশে বোমা ফাটিয়ে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাই সুন্দরগন্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে সান্জু নামে এক যুবকের মৃত্যু, গ্রেফতার -১
টিআর (সাধারণ) প্রকল্পে উলিপুুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নে হরিলুট

টিআর (সাধারণ) প্রকল্পে উলিপুুর উপজেলার হাতিয়া ইউনিয়নে হরিলুট

Print Friendly, PDF & Email

কুড়িগ্রাম (উলিপুর) প্রতিনিধি ঃ কুড়িগ্রামের উলিপুরে ২০১৯/২০ অর্থ বছরে গ্রামীন
অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ (টি আর) সাধারণ উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় ১ম ও ২য় পর্যায়ে ৭০ লাখ ৫১ হাজার ২শ ৬৫টাকা ৪৩ পয়সা বরাদ্দ হয়। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সিরাজুদ্দৌলার (পি আই ও)যোগসাজসে উক্ত টাকার ১৬ শতাংশেরও বেশি শুধুমাত্র হাতিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বি এম আবুল হোসেনের সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানেই বরাদ্দ হয়েছে।যার অধিকাংশ প্রকল্পের কোন অস্তিত্বই পাওয়া
যায়নি।

সরেজমিনে হাতিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রকল্প ঘুরে দেখা যায় শুধুমাত্র হাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবন সংস্কারের নামে সোয়া ৪ লক্ষাধিক টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। পরিষদ ভবন সংস্কারের নামে টি আর প্রকল্পের ১ম পর্যায়ে ২ লাখ ১২ হাজার ৫শ টাকা বরাদ্দ হলেও ২য় পর্যায়ে একই ভবনের বর্ধিত কক্ষ সংস্কারের নামে আবারও ২ লাখ ১২ হাজার ৫শ টাকা বরাদ্দ হয়। দুই পর্যায়ের বরাদ্দ ওইvসোয়া ৪ লক্ষাধিক টাকায় শুধুমাত্র ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের চুনকাম এবং ফ্লাগ স্ট্যান্ড ছাড়া আর কোনো কাজই হয় নি। ফলে সর্বমহলে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়।

হাতিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয নামক প্রতিষ্ঠানে সোয়া ২ লক্ষাধিক টাকা বরাদ্দ হলেও সেখানে কাজের কোনো নমুনা পাওয়া যায়নি, ওই বালিকা বিদ্যালযের প্রধান শিক্ষক চেয়ারম্যান নিজে হওয়ায় প্রতি অর্থ বছরে বিভিন্ন সংস্কার প্রকল্পের নাম ভাঙিয়ে সমুদয় টাকা লোপাট করেন বলে এলাকায় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়। সোনারার পাড় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার ঘর সংস্কার নামে প্রকল্পটিরও কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।

ধরলা নদী পাড় হয়ে সেখানে দেখা যায় শুধু মাত্র পুরাতন টিনের ঘর, যা কয়েকটি খুটির উপর দাঁড়ানো। দেড় লাখ টাকার প্রকল্প দেখানো ওই মাদরাসার প্রধান শিক্ষক মো:মামুনের সাথে মুখোমুখি কথা বলার চেষ্টা করলে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে সটকে পড়ে।

 
hostseba.com
 

তার ব্যবহৃত ফোন নম্বরটি বন্ধ থাকায় তার সাথে আর কথা বলা যায়নি। আরেকটি প্রকল্প হাতিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের মাঠ সংস্কারের নামে ২ লাখ ৮৭ হাজার ৬শ ৩২টাকা ৭৭ পয়সা বরাদ্দ থাকলেও, সেখানে শুধুমাত্র কিছু বালু ছাড়া কাজের আর কোন অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। তবে একটি সুত্রে জানা যায় বালু ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ওই বালুগুলো বিনামুল্যে নিয়েছেন চেয়ারম্যান বি এম আবুল হোসেন।

চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেনের লালসার হাত থেকে রক্ষা পায়নি শতাধিক বছরের
পুরাতন সরকারপাড়া জামে মসজিদটি।ওই মসজিদকে উপেক্ষা করে ১শ গজের মধ্যে
চিড়াখাওয়ার পাড় জামে মসজিদ নামক একটি মসজিদ নির্মাণ হয় তার নেতৃত্বে।সদ্য নির্মিত ওই মসজিদের নামেও সংস্কার দেখিয়ে ৪৪ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি।

এলাকার সাধারণ জনগণের সাথে কথা বলে জানা যায়,বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্য়োগে তাদের কষ্ট হলেও পরোক্ষ ভাবে চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেন নিজের লাভ খোঁজেন।

ফলে এলাকায় প্রচার হয়েছে যে,“দূর্যোগ ও বানে মানুষ ভাসে,আবুল চেয়ারম্যান হাসে। ”

উপজেলার মোট বরাদ্দের ১৬ শতাংশেরও বেশি শুধু হাতিয়া ইউনিয়নে বরাদ্দ দেয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সিরাজুদ্দৌলা(পিআইও) সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে বলেন “আপনি কোন পত্রিকায় কাজ করেন?
কাল অফিসে আসেন সাক্ষাতে কথা হবে বলে কল কেটে দেন।

আপনার মতামত দিন

Tayyaba Rent Car BBC News Ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Comments are closed.




© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team