1. seopay01833@gmail.com : Reporter : Reporter
  2. fhbadshah95@gmail.com : MJHossain : M J Hossain
  3. g21@exnik.com : isaac10j54517 :
  4. Janet-Baader96@picklez.org : janetbaader69 :
  5. tristan@miki8.xyz : katherinflower :
  6. makaylafriday74@any.intained.com : makaylafriday8 :
  7. mdrakibhasan752@gmail.com : Rakib Hasan : Rakib Hasan
  8. g39@exnik.com : meredithbriley :
  9. muhibbbc1@gmail.com : Muhibullah Chy : Muhibullah Chy
  10. olamcevoy@baby.discopied.com : olamcevoy1234 :
  11. g2@exnik.com : roseannaoreily4 :
  12. b13@exnik.com : sebastianstanfor :
  13. g29@exnik.com : tangelamedina :
  14. g24@exnik.com : teenaligar6 :
  15. b15@exnik.com : xugmerri6352 :
  16. g16@exnik.com : yzvhildegarde :

শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ০৪:৩১ পূর্বাহ্ন

সবার দৃষ্টি আকর্ষন:
বিবিসিনিউজ২৪ডটকমডটবিডি এর পেইজে লাইক করে মুহূর্তেই পেয়ে যান আমাদের সকল সংবাদ
ব্রেকিং নিউজ :
রিমান্ডে ওসি প্রদীপসহ ৩ পুলিশ সদস্য কৌশলে ছেলের বৌকে ধর্ষণের চেষ্টা, শ্বশুরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের কলারোয়ায় জাতীয় শোক দিবসের প্রস্তুতি সভায় আমিনুল ইসলাম লাল্টু গাজীপুরে নারী মাদক ব্যবসায়ী গাঁজাসহ আটক রাঙ্গুনীয়া সূর্য মূখী যুব সংঘের এক দশক পূর্তি উদযাপিত চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে দেওয়ান দীঘি পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে হাইকোর্টের আদেশ সংস্কৃতি যোদ্ধা ও সঙ্গীতগুরু, নোয়াখালীর কৃতি সন্তান অধ্যাপক রমনাথ সেনের জীবনাতিহাস শার্শা থেকে ৭২ লিটার দেশি মদসহ আটক-১ বেনাপোল সীমান্ত এলাকা থেকে ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার আটক-২ ফুলবাড়ীতে মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্ঠা করায় বাবার বিরুদ্ধে মেয়ের মামলা
গোশত নিয়ে গোপনে মধ্যবিত্তের ঘরে আবিদের দূর্বার তারুণ্য

গোশত নিয়ে গোপনে মধ্যবিত্তের ঘরে আবিদের দূর্বার তারুণ্য

Advertisements

Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিবেদক,চট্টগ্রামঃ চট্টগ্রামে দূর্বার তারুণ্য নামক এক সামাজিক সংগঠন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে চার মাস।কিন্তু বর্তমানে এর জনপ্রিয়তা বাংলাদেশ ছাড়িয়ে বিশ্বদরবারে পৌঁছে গিয়েছে।এ সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত হয় দেশের আলোচিত ফেসবুক লাইভ অনুষ্ঠান যোদ্ধা।

দূর্বার তারুণ্যের কার্যক্রম দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে।কখনও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ, হঠাৎ করে বিরিয়ানির প্যাকেট নিয়ে রাস্তায় নেমে পড়া কিংবা ঈদুল ফিতরে রেডি ফুড মধ্যবিত্তদের বাসায় গোপনে পৌঁছে দেয়ার মধ্য দিয়ে চমক দিয়েছে দূর্বার তারুণ্য দেশজুড়ে।দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকেও তরুণরা যুক্ত হচ্ছে এ সংগঠনের সাথে।

দূর্বার তারুণ্যে আজকে চমক দিয়েছে ৬০ টি মধ্যবিত্ত পরিবারের কাছে গোপনে গোশত পৌঁছে দেয়ার মধ্য দিয়ে। এসকল চমক যিনি পরিচালনা করছেন তিনি হলেন দূর্বার তারুণ্যের স্বপ্নদ্রষ্টা মুহাম্মদ আবু আবিদ। আজ প্রোগ্রামের বিষয়ে ভিডিও কল গুরুপে বিস্তারিতভাবে সাংবাদিকদের প্রজেক্টা সম্পর্কে বলেন।

শুরুতেই মুহাম্মদ আবু আবিদ অনুরোধ করেন,আপনারা সকলেই যারা আমাদের বিষয়ে লিখবেন তারা একইরকম তথ্য ই লেখেন।আমরা চাই মানুষ আমাদের কাজে অনুপ্রাণিত হোক।ভিউ পাবার জন্য বির্তকিত কোন লেখা লিখবেন না।
এরপর সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন, আমি যখনই বুঝতে পারি,এবছর অনেক মানুষ কোরবানি দিতে পারবে নাহ।

 
hostseba.com
 

তখনই আমার মাথায় আসে যদি এমন কিছু করা যায় যার মাধ্যমে তারা যেন মনে না করে, এবছর তারা কোরবানি দেয় নি বলে এ দিনে মাংস খেতে পারছে না।তারই ধারাবাহিকতায় আমি বেশকিছু বড় ভাই ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের সাথে আলোচনা করে এ প্রজেক্ট ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নি।তারপর ঘোষনার পর অনেকের ই সাড়া পাই,তবে তা আশানুরূপ ছিল না।তবুও আমরা যে আমাদের কথা রাখতে পেরেছি তাতেই আমাদের সার্থকতা।

এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যারা আজ আমাদের থেকে সাহায্য পেয়েছেন তারা সবাই সমাজে সম্মানিত। তাই ছবি তো থাক দূরের কথা, অনেকে তো জানেনই না, তারা যে দূর্বার তারুণ্যের মাংস পাচ্ছে।আমি ও কিছু শুভাকাঙ্ক্ষী ছাড়া কেউ জানে না, কাকে কাকে দেয়া হয়েছে এবং কিভাবে দেয়া হয়েছে। আমাদের কাছ থেকে যারা গ্রহন করবেন না,তাদের জন্য এমন লোক দিয়ে পাঠিয়েছি যেন তারা তা সানন্দে গ্রহন করেন।আমাদের প্যাকেটের পরিমাণও ছিল একটা পরিবারের জন্য যথেষ্ট।

এসময়ে স্বচ্ছতা নিয়ে মুহাম্মদ আবু আবিদ বলেন, আমার কাছে ক্লিয়ার লিস্ট আছে।যদি অনাকাঙ্ক্ষিত কোন ঘটনা না ঘটে তাহলে তা কখনও এক্সপোজ করব না।কিন্তু আমাদের সবারই মনে রাখতে হবে এখনও পৃথিবী বিশ্বাসই চলে।

একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও পত্রিকা প্রতিনিধি এসময়ে তাকে সরাসরি প্রশ্ন করে, আপনি কি মনে করেন,আপনার এই ৬০ টা পরিবারকে দেয়ার মধ্য দিয়েই সবার মুখে হাসি ফুটবে? এসময়ে মৃদু হেসে মুহাম্মদ আবু আবিদ বলেন, কখনওই না।কিন্তু একবার ভেবে দেখুন কোন সংগঠন বা কোন ব্যক্তির পক্ষে এরকম স্ট্রিম অপারেশন পুরো দেশে চালানো সম্ভব না।এরপর অর্থের বিষয় টা তো আছেই।কিন্তু যদি অঞ্চলভেদে আমরা সবার পাশে দাড়াই তাহলে যুগান্তকারী বিজয় সম্ভব। আপনি খেয়াল করলে দেখবেন দূর্বার তারুণ্য সবসময় ইউনিক প্রজেক্টে কাজ করে। তাই অল্প সময়ই আমরা এত ভালোবাসা পাচ্ছি। আমাদের ভালোবাসার প্রাপ্তির লোভে পড়ে অনেক সংগঠন এখন এগিয়ে আসছেন আমাদের মত মাঠ পর্যায়ে কাজ করবার জন্য। কিন্তু তাতে আমি খুবই খুশি। কারণ উপকার টা তো সমাজেরই হচ্ছে।

সর্বশেষে তিনি বলেন, সহযোগিতা করার জন্য মানসিকতা দরকার,সংগঠনের নয়।আপনিই ব্যক্তি পর্যায়ে কাজ শুরু করুন,দেখবেন আপনাকে ঘিরেই একটা সংগঠন তৈরি হবে।

দূর্বার তারুণ্য ইতিমধ্যেই তরুণদের বিশ্বাস ও আস্থার জায়গা হয়ে উঠেছে।তরুণরা নতুন নতুন স্বপ্ন দেখছে দূর্বার তারুণ্যকে ঘিরে।

আপনার মতামত দিন

Your 250x250 Banner Code

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements



Advertisements
© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team