1. seopay01833@gmail.com : Reporter : Reporter
  2. fhbadshah95@gmail.com : MJHossain : M J Hossain
  3. g21@exnik.com : isaac10j54517 :
  4. Janet-Baader96@picklez.org : janetbaader69 :
  5. tristan@miki8.xyz : katherinflower :
  6. makaylafriday74@any.intained.com : makaylafriday8 :
  7. mdrakibhasan752@gmail.com : Rakib Hasan : Rakib Hasan
  8. g39@exnik.com : meredithbriley :
  9. muhibbbc1@gmail.com : Muhibullah Chy : Muhibullah Chy
  10. olamcevoy@baby.discopied.com : olamcevoy1234 :
  11. g2@exnik.com : roseannaoreily4 :
  12. b13@exnik.com : sebastianstanfor :
  13. g29@exnik.com : tangelamedina :
  14. g24@exnik.com : teenaligar6 :
  15. b15@exnik.com : xugmerri6352 :
  16. g16@exnik.com : yzvhildegarde :

রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০, ১২:১৬ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
ব্রেকিং নিউজ :
ইউএনওর সামনেই দুই সাংবাদিককে বেধরক পেটালেন পুলিশ, নিন্দার ঝড় কেশবপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে শাহীন চাকলাদারের নিজস্ব উদ্যোগে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান শার্শা উপজেলায় মেহেদি হাসানের ব্লিচিং পাউডার বিতরন করোনা ট্রাজেডি মোকাবেলায় অসহায়দের পাশে “উখিয়া অনলাইন প্রেসক্লাব” রাঙ্গামাটিতে বখাটেদের হামলার মুখে আনাসার ভিডিপি’র আইনশৃঙ্খলা বাহিনী স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত চিত্রনায়ক কাজী মারুফ সিলেটে ৭০০ টাকার জন্য যুবককে ছুরিকাঘাতে খুন ! কুকুরের নিন্দ্রা সঙ্গী পথশিশুকে বাংলোতে স্থান দিলেন:জেলা প্রশাসক নাগরপুরের হাট বাজারে জনসমাগম রুখতে ইউএনও এবং ওসি দৃঢ় সংকল্প করোনা ভাইরাসে সর্তক থাকার আহবানঃ এড. উত্তম কুমার দত্ত
শরীরে আঘাতের চিহ্ন, শানুকে ‘খুন’ করে আমতলীর দুই ওসি

শরীরে আঘাতের চিহ্ন, শানুকে ‘খুন’ করে আমতলীর দুই ওসি

Advertisements

Print Friendly, PDF & Email

ফয়সাল খানঃ  ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে প্রথমে ১০ হাজার টাকা নেয়। তারপর আরও তিন লাখ টাকা দাবী করে। সেই টাকা দিতে না পারায় নির্দোশ শানুকে পিটিয়ে হত্যা করে থানার মধ্যে লাশ ঝুলিয়ে রাখে দুই ওসি এবং ডিউটি অফিসার। বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে হত্যাকান্ড অস্বীকার করে বলে আত্মহত্যা করেছে। ওসির রুমে আত্মহত্যা করার কোন কারনই হতে পারে না। এটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড।

করোনা আতঙ্কের মধ্যে দক্ষিণাঞ্চলে টক অব দ্যা টপিক হয়ে ওঠা আমতলী থানায় ওসির কক্ষে সন্দেহভাজন আসামীর লাশ উদ্ধারের ঘটনা সাজানো দাবী এমন কথাই বলছিলেন নিহতের ছেলে সাকিব হোসেন।

তিনি আরও বলেন, বিনা অপরাধে আমার বাবাকে ওসি ধরে এনে তিন লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেছে। আমি ওসির দাবি করা টাকা দিতে অস্বীকার করায় আমার বাবাকে নির্যাতন করেছে। বাবার ওপর নির্যাতন যাতে বন্ধ হয় সেজন্য মঙ্গলবার দুপুরে আমি ওসিকে ১০ হাজার টাকা দেই। কিন্তু টাকায় ওসি তুষ্ট হয়নি। নির্যাতনের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দেয়। বুধবার সকালে আমি বাবার সঙ্গে দেখা করতে থানায় আসি। কিন্তু আমাকে দেখা করতে না দিয়ে ওসি আবুল বাশার ও ওসি (তদন্ত) মনোরঞ্জন মিস্ত্রি গালাগাল করে তাড়িয়ে দেয়। ওসি বলে, টাকা নিয়ে আস, তারপর দেখা করতে দেবো।

আমতলী উপজেলা গুলিশালালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাড. নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, শানু হাওলাদারকে বাড়ি থেকে ধরে এনে নির্যাতন করেছে। আত্মহত্যার ঘটনা পুলিশের সাজানো।

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান বলেন, ‘থানার ওসি মো. আবুল বাশার টাকা না পেয়ে নির্যাতন করে হত্যা করেছে। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার দাবি করছি।’

আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, পুলিশ পরিকল্পিতভাবে শানুকে নির্যাতন করে খুন করেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা শংকর প্রসাদ অধিকারী বলেন, নিহত শানু হাওলাদারের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছ। তবে ময়নাতদন্ত ছাড়া মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে না।

জানা গেছে, আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের কলাগাছিয়া গ্রামে ২০১৯ সালে বছর ৩ নভেম্বর ইব্রাহিম নামের একজনকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ওই হত্যা মামলার এজাহারে নিহত শানু হাওলাদারের সৎ ভাই মিজানুর রহমান হাওলাদারকে আসামি করা হয়। ওই আসামির ভাই শানু হাওলদারকে গত সোমবার (২৩ মার্চ) রাত সাড়ে ১১টার দিকে সহেন্দভাজন হিসেবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমতলী থানা পুলিশ ধরে নিয়ে আসে।

শানুর ছেলে মঙ্গলবার থানায় এসে তাকে খাবার দিয়ে যান। বুধবার পরিবারের লোকজন এসে শানু হাওলাদারের সঙ্গে দেখা করতে চাইলে পুলিশ দেখা করতে দেয়নি। বৃহস্পতিবার সকালে থানা থেকে খবর দেওয়া হয় শানু হাওলাদার ওসি তদন্তের কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

আমতলী থানার ওসি মো. আবুল বাশার বলেন, আসামী শানু হাওলাদার বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ৬টার দিকে ওয়াশ রুমে যাওয়ার জন্য বলে। সে ওয়াশ রুম থেকে ফিরে এসে এক ফাঁকে হাজত খানার ফ্যানের সঙ্গে গলায় রশি পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

কিন্তু হাজতখানায় কোনও ফ্যান নেই সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি পূর্বের কথা পাল্টে বলেন, ‘ওসি (তদন্ত) মনোরঞ্জনের কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। টাকা না দেওয়ায় তাকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি জবাব এড়িয়ে যান।

বরগুনার পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন বলেন, এ ঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

পুলিশ টাকা না পেয়ে নির্যাতন করে হত্যা করেছে-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান তিনি। তিনি আরও বলেন, ‘অপরাধী যেই হোক নিরপেক্ষ তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বরগুনার আমতলী থানায় এক কর্মকর্তার (ওসি-তদন্ত) কক্ষ থেকে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। একটি হত্যা মামলার সন্দেহভাজন হিসেবে শানু হাওলাদারকে আটক করা হয়েছিল।

পরিবারের অভিযোগ, থানার ওসি আবুল বাশার ও ওসি (তদন্ত) মনোরঞ্জন মিস্ত্রির দাবি করা তিন লাখ টাকা না দেওয়ায় নির্যাতন করে তাকে হত্যা করা করেছে। তবে পুলিশের দাবি, শানু হাওলাদার আত্মহত্যা করেছে।

এ ঘটনায় আমতলী থানার ওসি (তদন্ত) মনোরঞ্জন মিস্ত্রি ও ডিউটি অফিসার মো. আরিফুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি। বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সকালে বরগুনার আমতলী থানায় এ ঘটনা ঘটে।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team