শনিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২০, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
ব্রেকিং নিউজ :
নিখোজের চার দিন পর শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

নিখোজের চার দিন পর শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

Advertisements

বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্কঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় নিখোঁজের চার দিন পর তোফাজ্জল হোসেন নামের সাত বছর বয়সী এক শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গতকাল ভোরে গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। শিশুটি উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বাঁশতলা গ্রামের জুবায়ের হোসেনের ছেলে। তোফাজ্জল স্থানীয় একটি মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, জুবায়ের হোসেনের প্রতিবেশী হবি মিয়ার ঘরের পেছনে লাশটি বস্তাবন্দি ছিল। রক্তাক্ত লাশের ডান চোখ তুলে নেওয়া হয়েছে, মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার বিকাল থেকে তোফাজ্জল নিখোঁজ ছিল। সেদিন বাড়ি থেকে খেলতে গিয়ে আর ফেরেনি। এর পর পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে থানায় জিডি করে তার পরিবার। গতকাল শনিবার ভোর পাঁচটার দিকে জুবায়ের হোসেনের প্রতিবেশী হবি মিয়ার ঘরের পেছনে তোফাজ্জলের বস্তাবন্দি লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাঁশতলা গ্রামের বাসিন্দা কালা মিয়া (৬০) ও তার ছেলে রেজাউল কবিরকে (২৮) আটক করেছে।

তোফাজ্জল হোসেনের বাবা জুবায়ের হোসেনের অভিযোগ, গ্রামে কালা মিয়ার ছেলে রেজাউল কবিরের সঙ্গে তার বোনের বিয়ে হয়েছে। রেজাউল প্রায়ই তার বোনকে মারধর করতেন। এ ঘটনায় গত বুধবার আদালতে তারা একটি মামলা করেছেন। এর পর রেজাউলের পরিবারের তাদের দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছিল। জুবায়ের হোসেন বলেন, ‘আমার ছেলেকে রেজাউল ও তার পরিবারের লোকজন অপহরণ করে নিয়ে হত্যা করেছে।’

hostseba.com

গতকাল দুপুর ১২টার দিকে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতিকুর রহমান জানান, তারা ঘটনাস্থলে গেছেন। তোফাজ্জলের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একই গ্রামের দুই ব্যক্তিকে আনা হয়েছে পুলিশ হেফাজতে। পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করছে।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team