শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
বানিয়াচংয়ে মুক্তিযোদ্ধা চত্বরে যানবাহনের স্ট্যান্ড!

বানিয়াচংয়ে মুক্তিযোদ্ধা চত্বরে যানবাহনের স্ট্যান্ড!

Advertisements

মোঃজুনাইদ চৌধুরী,ব্যুরো প্রধান সিলেটঃ
হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার বড়বাজারের মুক্তিযোদ্ধা চত্বর থেকে অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ করার পর কিছুদিন যেতে না যেতেই আবারও বেদখল হয়ে যাচ্ছে এই চত্বরটি। তবে এবার কোনো দোকানপাট নয়, সেখানে জিপ, টমটম, ঠেলাগাড়ি ট্রাক স্ট্যান্ড গড়ে তোলা হয়েছে।

লাল কাপড় দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করে দেয়ার পরও এসবের তোয়াক্কা না করে অসৎ ব্যক্তিরা যানবাহন রাখার জন্য জায়গা করে দিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

যানবাহন না রাখার জন্য ভূমি অফিসের তহশিলদার বারবার মৌখিকভাবে যানবাহন মালিকদের নিষেধ করার পরও আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে যত্রতত্রভাবে গাড়ি রেখে তাদের কাজ করে যাচ্ছেন।

বিকালে এ প্রতিবেদক সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চত্বরের তিন পাশে বিভিন্ন ধরণের গাড়ি রাখা হয়েছে। ফলে পুরনো চেহারায় ফিরে গেছে মুক্তিযোদ্ধা চত্বর।

এদিকে চত্বরটি আবারও দখলে চলে যাওয়ায় ক্ষোভ জানিয়েছেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা।

hostseba.com

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা শেখ নমীর আলী এ প্রতিবেদককে জানান, আমি ব্যক্তিগতভাবে তহশিলদারের সাথে পুনরায় দখল হওয়া চত্বর নিয়ে কথা বলেছি। তিনি আমাকে আশ্বস্ত করেছেন অচিরেই গাড়ি মালিকদের জানিয়ে দেয়া হবে তাদের গাড়িগুলো সরানোর জন্য।

কিন্তু অদ্যাবধি পর্যন্ত প্রশাসনের কোনো ব্যক্তি এসে তাদেরকে কোনো কিছু বলেননি। এখন যদি এই চত্বরে যানবাহন রেখে গাড়ির স্ট্যান্ড বানানো হয় তাহলে আগে যারা এখানে ছোটখাটো ব্যবসাপাতি করতো তাদের কি দোষ ছিল? তাহলে তারাই তো আবার এসে ব্যবসা করতে পারে। এটা মেনে নেয়া যায় না।

তাই তিনি প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করেন মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান দেখিয়ে এই জায়গাটি খালি করে একটি স্থায়ী সীমানা দেওয়ার জন্য। নতুবা মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

বানিয়াচং সহকারী কমিশনার (ভূমি) মতিউর রহমান খান জানান, সরকারি লাল নিশান দেয়ার পরও যারা সরকারের এই আদেশ অমান্য করে চত্বরে প্রবেশ করেছে তাদের বিরুদ্ধে আমরা অ্যাকশনে যাব।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team