বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১২:২১ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
ব্রেকিং নিউজ :
আবারও কাশ্মীরে গোলাগুলি,নিহত ৩ সন্ত্রাসী জাপানে এখনও বিরাজ করছে টাইফুনের প্রভাব,নিহত বেড়ে ৭৪ সড়ক ব্যবহারে সচেতন হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর। কাশ্মীরে বন্ধ মোবাইল এসএমএস সেবা যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছেন তুরস্ক। অনুষ্ঠিত হল আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা ’ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড এন্ড কালচারাল এক্সপো ২০১৯’। পাসপোর্টে পুলিশি ভেরিফিকেশন কেন? জলবায়ু তহবিল গঠনে আন্তর্জাতিক তহবিল গঠন করা জরুরি-ডেপুটি স্পিকার রাঙ্গামাটির বরকল উপজেলার ভুষনছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক এবং সাধারন সম্পাদক আবু সাইদ লাখো মানুষের মন জয় করে ৩ বছরে পদার্পণ করল দৈনিক আলোকিত সকাল
তুরস্ককে দেখে নেয়ার হুমকি ডোনাল্ড ট্রাম্পের!

তুরস্ককে দেখে নেয়ার হুমকি ডোনাল্ড ট্রাম্পের!

Advertisements

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃকুর্দি যোদ্ধাদের ওপর হামলার চিন্তা করলে আবারো তুরস্ককে দেখে নেয়া হবে বলে টুইটারে এক হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। উত্তর-পশ্চিম সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ‘অবাক করা’ ঘোষণা দেয়ার পর একের পর এক টুইট বার্তায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। যদিও সেনা প্রত্যাহারের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ট্রাম্পের রিপাবলিকান সহযোগীরা।

সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটকে ঠেকাতে কুর্দি বাহিনী যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান সহযোগী। দেশটিতে এক হাজারের মতো মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে। স্টেট ডিপার্টমেন্টের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সীমান্ত এলাকা থেকে এরই মধ্যে ডজন দুয়েক সৈন্য প্রত্যাহার করা হয়েছে। ধারাবাহিক টুইটে ট্রাম্প বলেন, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সুযোগে তুরস্ক যদি সীমান্ত পার হয়ে কুর্দি যোদ্ধাদের ওপর হামলার চিন্তা করে, তাহলে ভুল করবে।

এদিকে, কুর্দিনিয়ন্ত্রিত যোদ্ধাদের প্রধান গ্রুপটি মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে ভালোভাবে নিতে পারেনি। তারা একে পিঠে ছুরি মারার সঙ্গে তুলনা করেছে। সেনা প্রত্যাহারের ফলে সিরিয়ায় আইএস-এর উৎপাত বাড়বে বলেই সমালোচকরা মনে করছেন। তবে ট্রাম্প বলেছেন, এমন কিছু করলে তুরস্ক ভুল করবে।

এর আগেও তুরস্কের অর্থনীতিতে বেশ বড়ো রকম ধাক্কা দিয়েছে ট্রাম্প। তার আগে বেশ কিছু ইস্যুতে দুই দেশের সম্পর্কে অবনতি ঘটতে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় গত বছর তুরস্কের বেশ কিছু পণ্যের ওপর শুল্কবৃদ্ধি করে যুক্তরাষ্ট্র। পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তুরস্কের শীর্ষ কর্মকর্তাদের ওপর।

আপনার মতামত দিন
bbc-news-24-ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team