রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
ব্রেকিং নিউজ :
বিবিসিনিউজ২৪ এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন থাই ব্যবসায়ী মেয়ের পাত্র খুঁজছেন, দেবেন লাখো ডলার জেলা সাংবাদিক পরিষদ সাতক্ষীরার অন্যতম কার্যনির্বাহী সদস্য নির্বাচিত হলেন ফারুক হোসেন রাজ কোরিয়ান ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান ভুঁয়া “এন এস আই”কর্মকর্তা কে আটক করল পুলিশ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যুক্ত হল আরো ১ লাখ রোহিঙ্গা ! প্রয়ত শিক্ষামন্ত্রী এইস কে সাদেক ও সাবেক জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক এম পি, কেশবপুরের মানুষের জন্য আশীর্বাদ- ডেপুটি স্পিকার যবি প্রবির ফ্রি হেলথ্ ক্যাম্প অন্যদের জন্য দৃষ্টান্তঃ ডেপুটি স্পীকার যশোর জেনারেল হাসপাতালে ১২৫ ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন ! যশোরে ট্রেনে কেটে বৃদ্ধার মৃত্যু ! জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঝিকরগাছায় দুই স্থানে আলোচনা সভা মংলা বন্দরের নতুন চেয়ারম্যান রিয়াল এডমিরাল এম মোজাম্মেল হক
বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু উচ হ্লা ভান্তের বিরুদ্ধে ভূমি দস্যুতার অভিযোগে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগীরা

বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু উচ হ্লা ভান্তের বিরুদ্ধে ভূমি দস্যুতার অভিযোগে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগীরা

Advertisements

মহরম আলী বিবিসি নিউজ২৪,বান্দরবানঃ আজ সকাল ১০ ঘটিকায় বান্দরবান জেলা সদরের বঙ্গবন্ধু মুক্ত মঞ্চের সামনে জমি হারানোর ভুক্তভোগী এবং বান্দরবান পার্বত্য জেলার শান্তিপ্রিয় সচেতন জনগণ উপস্থিত হয়েছে এক অপ্রতিরোধ্য ভূমি দস্যুর হাতে দখলকৃত প্রায় ১০০ (একর) জমি উদ্ধারের জন্য এক শান্তিপ্রিয় মানববন্ধন ও সভার আয়োজন করে। আজ সকাল ১০টায় বান্দরবান প্রেসক্লাব চত্তর থেকে ট্রাফিক মোড় পর্যন্ত ফাদার জেরোম ডি রোজারিও উক্ত মানববন্ধনে নেতৃত্ব দেন।

এতে শত শত পাহাড়ি বাঙালি অংশগ্রহণ করে তারা বলেন, আমরা ভুক্তভুগি গণ এই ভূমিদস্যু আইন বিরোধী অমানবীয় কাজের তীব্র নিন্দা জানাই এবং আমাদের বেদখলকৃত জমি ফেরত পাবার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং স্থানীয় প্রশাসনের কাছে আকুল মিনতি জানায়, ভাবতে অবাক লাগে একজন ধর্মগুরু হয়ে এই ধরনের কাজ তার পক্ষে কিভাবে সম্ভব আর এও কি সম্ভব যে তিনি সর্বমানবের কল্যাণ দেখিয়ে জবর দখল করে তার নিজস্ব বলয় এলাকা ও রাজ্য তৈরি করে চলেছে আমরা অনেক নিরব ছিলাম।

কিন্তু কেন, তার মধ্যে কি মানবীয় মূল্যবোধ বলতে কিছুই নেই আমরা সবাই মানুষ তাই মানুষের প্রতি স্নেহ মায়া-মমতা ভ্রাতৃত্ববোধ ভালোবাসা এসব কেন তার এমন জবর দখল,, বৌদ্ধ ধর্মীর মতে এমন ভূমি দখল কি ধর্মীয় গ্রন্থে কোথাও লেখা আছে,,??? অত্র এলাকাবাসী সবার মনে প্রশ্ন জাগে এ অধিকার তাকে কে দিল এত ক্ষমতা ও টাকা পয়সার উৎস কি,,,?? কোথা থেকে এত টাকা আসে,,,?? কেন এই ভূমিদস্যুতা আসল পরিচয় তুলে ধরে মুখোশ উৎমচন করে দিতে হবে। আমরা এত ভয় পাচ্ছি আমরা প্রত্যেকে আমাদের বিবেককে প্রশ্ন করি।

এই ভূমিদস্যু উচ হ্লা ভান্তে বিগত ২০০৫ সাল হতে আজ অবধি অনেকের মুখের ভাত কেড়ে নিয়েছে,অনেক পরিবারকে রাস্তায় বসিয়েছে,অনেককে এই এলাকা থেকে বিতাড়িত করেছে,ভয় ভীতি দেখিয়ে মামলা মোকাদ্দমা দিয়ে এক অস্থির পরিবেশ তৈরি করেছে এবং প্রাণনাশের হুমকি পর্যন্ত দিয়েছে যার জন্য অনেকেই অত্র এলাকায় আসতে ভয় পায়। এরূপ পরিস্থিতিতে আমরা ভুক্তভোগীগন এই মানববন্ধনের মধ্য দিয়ে আমাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়ার জন্য নিরাপত্তার দাবি জানাচ্ছি। স্থানীয় ব্যবসায়ী জনাব মোঃ নুরুল আলম বলেন ও সবার কাছে প্রশ্ন রাখেন আমরা কি আমাদের জায়গা সম্পত্তি নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করতে পারবো,, এবং আমাদের আগামী প্রজন্মকে শিক্ষা অন্ন বস্ত্র বাসস্থান স্থায়ী ঠিকানা বলতে কিছুই রেখে যেতে পারব না, কেন এ অবস্থা এবং আমাদের সহজ সরল সুন্দর জীবন কোথায় নিরাপদ এই বৌদ্ধ সন্ত্রাসী ভূমি জবর দখলকারীর হাতে,,,???

hostseba.com

আসুন সত্য ও সুন্দরের পথ ধরে মাতৃভূমির মাটি ও মানুষকে ভালবাসি। তিনি বলেন এ কি করে সম্ভব একজন ধর্মগুরু কি করে কাজ করতে পারে আমাদের মানবীয় মূল্যবোধ ও ধর্মীয় মূল্যবোধ যার বিপরীতে ধাবিত হচ্ছে একজন শিক্ষিত ব্যক্তি ও ধর্মগুরু থেকে এরূপ আচরণ কারো কাম্য নয়। তিনি প্রশ্ন রাখেন এর শেষ কোথায়? মিস্টার দিলীপ বড়ুয়া বলেন, বড়ুয়া কল্যাণ সমিতির সভাপতি হিসেবে আমরা কোথায় আছি কোথায় যাচ্ছি কি করতে চাই আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ভূমিদস্যু ও সন্ত্রাসীদের ব্যাপারে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন।

কিন্তু রাষ্ট্রীয় ধর্মীয় আইন অমান্য করে তথাকথিত সন্ত্রাসী ধর্মীয় লেবাসধারী ভন্ড উচ হ্লা ভান্তের এহেন কাজে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। মানববন্ধনে প্রধান সমন্বয়কারী ফাদার যেরোম ডি রোজারিও বলেন আজকে আমরা কোথায় আছি আমাদের ধর্মীয় মূল্যবোধ আজকে কোথায় তাই ঠিকানা ভিটামাটি জমিজমা ভূমিদস্যুর হাত থেকে ফেরত চায় আমরা বান্দরবানে শান্তি চাই সম্প্রীতি চাই ধর্মীয় মূল্যবোধ চাই কিন্তু তথাকথিত সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধ না করলে পার্বত্য বান্দরবানবাসী কে আমরা তাদের অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাবো বলে হুশিয়ারী দেন। সত্য ছিল সত্য আছে সত্য থাকবে কারণ সত্য চির সত্য এবং সর্বজনস্বীকৃত আমরা সবাই চাই, আর শান্তিতে সহাবস্থান করতে চায়, তাই আসুন আমরা সবাই সত্য শান্তি আলোর মানুষ হয়ে দেশ সমাজ ও জাতিকে সাহায্য করি।

এই মানববন্ধনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ বান্দরবান পার্বত্য জেলা আহ্বায়ক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আকন্দ ও একাত্মতা প্রকাশ করেছেন হিলি স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন বান্দরবান জেলার সভাপতি জনাব মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন রাসেল এবং হিলি ওমেন ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বান্দরবান জেলা আহ্বায়িকা জনাবা মোসাম্মৎ আয়েশা সিদ্দিকা শাহিনা ও হিলি ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন এ সভাপতি মোহাম্মদ হোসাইন ও অন্যান্য সকল সম্প্রদায় নেতৃবৃন্দ।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team