সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ১১:৩১ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
ব্রেকিং নিউজ :
বিবিসিনিউজ২৪ এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন থাই ব্যবসায়ী মেয়ের পাত্র খুঁজছেন, দেবেন লাখো ডলার থানায় কাটলো বাসর রাত অবশেষে ভেঙ্গে গেল বাল্যবিয়ে! হাটহাজারীতে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার হাটহাজারীতে স্থানীয়দের সহযোগিতায় কাটিরহাট-যোগীরহাট সড়কের সংস্কার। চট্টগ্রামে ১টি বিদেশী গুলিসহ আসামী আটক ১ কলারোয়ায় মারামারি মামলায় আটক-১ জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ নেতৃবৃন্দের সাথে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এর মত বিনিময় সভা চট্টগ্রামে ৩০০ পিস ইয়াবাসহ আটক ১ চুয়াডাঙ্গা মাদক ব্যাবসায়ী রনি আটক পাহাড়তলীতে মায়ের সাথে মেয়ের অভিমান অতঃপর মেয়ের গলায় ফাঁস বাল্যবিবাহ ঠেকালেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট
নুসরাত হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ততায় এসপিসহ দুই এসআই সাসপেন্ড!

নুসরাত হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ততায় এসপিসহ দুই এসআই সাসপেন্ড!

Advertisements

বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্ক ঃ মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দায়িত্ব পালনে গাফিলতির প্রমাণ পাওয়ায় ফেনীর সোনাগাজী মডেল থানার দুই এসআইকে সাময়িক বরখাস্ত (সাসপেন্ড) করা হয়েছে। তারা হলেন মো. ইউসুফ ও মো. ইকবাল আহামদ।

গতকাল শনিবার তাদের সাসপেন্ড করে মো. ইউসুফকে খুলনা রেঞ্জে এবং ইকবাল আহমদকে খাগড়াছড়ি জেলায় সংযুক্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া ফেনীর পুলিশ সুপার (এসপি) জাহাঙ্গীর আলম সরকারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ভয়াবহ ওই হত্যাকান্ডে এর আগে সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এবার তাকে রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করার প্রতিবাদে সেখানে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন হয়েছে। পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, সাময়িক বরখাস্ত করে দুই এসআইকে দূরবর্তী বিভিন্ন ইউনিটে সংযুক্ত করা হয়েছে। সংযুক্তি কোনো বদলি নয়, এটি শাস্তিমূলক প্রক্রিয়ার একটি অংশ। সংযুক্তিকালে কোনো দায়িত্ব দেওয়া হয় না।

তিনি আরও বলেন, পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের অংশ হিসেবে তাকেও একটি ইউনিটে সংযুক্ত করা হবে। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন।

পুলিশ সদর দপ্তরের গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী দুই এসআইয়ের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতেই তাদের বিভিন্ন ইউনিটে সংযুক্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। নুসরাত হত্যার ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে গত ৩০ এপ্রিল আইজিপির কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত দল।

এতে এসপি ও ওসিসহ চার পুলিশ কর্মকর্তার দায়িত্ব পালনে গাফিলতির অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার সুপারিশ করা হয়। পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি এসএম রুহুল আমিনের নেতৃত্বে ওই কমিটি গঠিত হয়েছিল।

জানা গেছে, রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করার কারণে সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন আপাতত বেতন-ভাতা ও পদ অনুযায়ী সুযোগ-সুবিধা পাবেন না, শুধু নিয়ম অনুযায়ী খোরাকি ভাতা পাবেন। অগ্নিদগ্ধ হয়ে নুসরাতের মৃত্যুর পরদিন ফেসবুকে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। এতে দেখা যায়, থানায় ওসির সামনে অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলে ধরতে গিয়ে দুই হাতে মুখ ঢেকে অঝোরে কাঁদছেন নুসরাত। সে সময় ওসি মোয়াজ্জেম ‘মুখ থেকে হাত সরাও, কান্না থামাও’ বলার পাশাপাশি এও বলেন, ‘এমন কিছু হয়নি যে এখনো তোমাকে কাঁদতে হবে’।

ওই ভিডিও ধারণ এবং তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ায় মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা হয়। মামলাটি তদন্ত করছে পিবিআই। সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের মামলা তুলে না নেওয়ায় গত ৬ এপ্রিল কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় ওই মাদ্রাসার ছাত্রী নুসরাতের গায়ে। ১০ এপ্রিল ওসি মোয়াজ্জেমকে সোনাগাজী থানার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নে বদলি করা হয়। মামলার তদন্তভার ন্যস্ত করা হয় পিবিআইয়ের হাতে। ওই দিন রাতে ঢাকা মেডিক্যালে মারা যান নুসরাত।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team