মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:০৪ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা,বাড়িঘর জ্বলেপুড়ে ছাই

পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা,বাড়িঘর জ্বলেপুড়ে ছাই

পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা,বাড়িঘর জ্বলেপুড়ে ছাই
পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা,বাড়িঘর জ্বলেপুড়ে ছাই
Advertisements


বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্কঃ পরকিয়ার জের ধরে স্বামীর পরিবারকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে মারতে না পেরে অবশেষে গভীর রাতে বাড়িতে আগুন লাগিয়ে পলাতক জেরিন নামের একটি মহিলা।ঘটনাটি আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বিপরীতে ৮ নং ওয়ার্ড অর্থাৎ চোল্লা ফকিরের বাড়িতে গৃহবধূ নিয়ে পরকিয়া সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।

ওই এলাকার স্হানীয় বাসিন্দারা জানান জেরিন দীর্ঘদিন ধরে বহিরাগত কতগুলো ছেলের সাথে আশা যাওয়া করে।এমনকি জেরিনের শ্বশুর বাড়িতে দিনের পর দিন নতুন নতুন তরুনের আগমন।স্হানীয়রা বাধা দিলে জেরিন খালাত ভাই বা আত্মীয় পরিচয় দেয়।এমনকি প্রতিদিন রাতে স্বামীকে চায়ের সাথে ঘুমের ট্যাবলেট মিশিয়ে খায়ে দেয়।যার প্রতিক্রিয়ায় স্বামী গভীর ঘুমে জেরিনের প্রমিকাকে দরজা খুলে দেয়।এমনকি ফজরের আযানের আগে বের হয়ে যাই।

পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা,বাড়িঘর জ্বলেপুড়ে ছাই | Viral News

পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা,বাড়িঘর জ্বলেপুড়ে ছাইবিবিসিনিউজ২৪,ডেস্কঃ পরকিয়ার জের ধরে স্বামীর পরিবারকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে মারতে না পেরে অবশেষে গভীর রাতে বাড়িতে আগুন লাগিয়ে পলাতক জেরিন নামের একটি মহিলা।ঘটনাটি আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বিপরীতে ৮ নং ওয়ার্ড অর্থাৎ চোল্লা ফকিরের বাড়িতে গৃহবধূ নিয়ে পরকিয়া সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে।ওই এলাকার স্হানীয় বাসিন্দারা জানান জেরিন দীর্ঘদিন ধরে বহিরাগত কতগুলো ছেলের সাথে আশা যাওয়া করে।এমনকি জেরিনের শ্বশুর বাড়িতে দিনের পর দিন নতুন নতুন তরুনের আগমন।স্হানীয়রা বাধা দিলে জেরিন খালাত ভাই বা আত্মীয় পরিচয় দেয়।এমনকি প্রতিদিন রাতে স্বামীকে চায়ের সাথে ঘুমের ট্যাবলেট মিশিয়ে খায়ে দেয়।যার প্রতিক্রিয়ায় স্বামী গভীর ঘুমে জেরিনের প্রমিকাকে দরজা খুলে দেয়।এমনকি ফজরের আযানের আগে বের হয়ে যাই।এই রহস্যাটি কিছুদিন গোপন থাকলে ও স্হানীয় /প্রতিবেশীর হাতে জেরিন আলোচিত হয়ে যায়।জেরিন দুই বাচ্চা।সাজানো সংসার তাদের।জেরিনের স্বামী সাহাব উদ্দীন একটি প্রাইভেট প্রতিষ্টানে চাকরী করে।এমনকি ওই এলাকার চৌকিদার ও মসজিদ কমিটির সভাপতি জেরিনের অপকর্মে বাধা দিলে জেরিন তা অস্বীকার করে।জেরিনের স্বামী সাহাব উদ্দীন বলেন গ্রাম্য চালিশে অনেক সমাধান হয়ছে।কিন্তু জেরিন এলাকার মান্যগন্য কাউকে পরোয়া করেনা।দিনের পর দিন তার অপকর্মগুলো চালিয়ে যাচ্ছে।সহ্যের সীমা পেরিয়ে সাহাব উদ্দীন বাধা দিলে স্বামীকে বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে।এমনকি স্বামীর পুরো পরিবারকে বাহিরের ডাকাতের ভয় দেখিয়ে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে।একদিন রাতে তারা অপকর্মগুলো হাতেনাতে ধরলে জেরিন সেদিন রাতে বাড়িতে আগুন লাগিয়ে সবাইকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছিলো।কিন্তু কাউকে আগুনে পুড়তে হয়নি।পুড়ে গেল বাড়িঘর।জেরিন এখন পলাতক রয়েছে।

Posted by BBC News 24 on Monday, April 8, 2019

এই রহস্যাটি কিছুদিন গোপন থাকলে ও স্হানীয় /প্রতিবেশীর হাতে জেরিন আলোচিত হয়ে যায়।জেরিন দুই বাচ্চা।সাজানো সংসার তাদের।জেরিনের স্বামী সাহাব উদ্দীন একটি প্রাইভেট প্রতিষ্টানে চাকরী করে।এমনকি ওই এলাকার চৌকিদার ও মসজিদ কমিটির সভাপতি জেরিনের অপকর্মে বাধা দিলে জেরিন তা অস্বীকার করে।জেরিনের স্বামী সাহাব উদ্দীন বলেন গ্রাম্য চালিশে অনেক সমাধান হয়ছে।কিন্তু জেরিন এলাকার মান্যগন্য কাউকে পরোয়া করেনা।দিনের পর দিন তার অপকর্মগুলো চালিয়ে যাচ্ছে।সহ্যের সীমা পেরিয়ে সাহাব উদ্দীন বাধা দিলে স্বামীকে বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে।এমনকি স্বামীর পুরো পরিবারকে বাহিরের ডাকাতের ভয় দেখিয়ে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে।একদিন রাতে তারা
অপকর্মগুলো হাতেনাতে ধরলে জেরিন সেদিন রাতে বাড়িতে আগুন লাগিয়ে সবাইকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছিলো।কিন্তু কাউকে আগুনে পুড়তে হয়নি।পুড়ে গেল বাড়িঘর।জেরিন এখন পলাতক রয়েছে।

এমনকি তারা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করে।অপরদিকে সাহাব উদ্দীন বিবিসি নিউজ২৪ কে বলেন আমি আমার স্ত্রীকে খুব ভালবাসতাম।কিন্তু এক পর্যায়ে আমাকে অবহেলা করে আসছিলো।আমি পরকিয়ার বিষয়ে বললে আমাকে আর আমার মাকে মারধর করে।আমি তাকে আর জীবন সঙ্গী হিসেবে রাখতে চায় না

hostseba.com
আপনার মতামত দিন
bbc-news-24-ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team