মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
পাহাড়তলীতে জমজমাট জুয়ার আসর,দেখার কেউ নেই (পর্ব-০১)!

পাহাড়তলীতে জমজমাট জুয়ার আসর,দেখার কেউ নেই (পর্ব-০১)!

Advertisements

মোঃআনোয়ার হোসেন,ক্রাইম প্রতিনিধি,চট্টগ্রামঃ চট্টগ্রাম নগরীর ৯ নং ওয়ার্ড পাহাড়তলি থানাধীন সিডিএ মার্কেট এলাকায় রসুলপুর কলোনীতে চলছে অবাধ জমজমাট জুয়ার আসর। দিনের পর দিন রমরমা জুয়ার আসর ও নানা ধরনের অপরাধ চলছে, কিন্তু দূর্ভাগ্যর বিষয় দেখার কি কেউ নেই ! ব্যাপারটি চট্টগ্রামের পাহাড়তলী এলাকার শীর্ষ সংবাদে পরিণত হয়েছে।

বাঁশের পেন্ডেল দিয়ে তৈরী করে সিডিএ মার্কেট এলাকায় রসুলপুর কলোনী এলাকায় অবাধে লাখ লাখ টাকার অবৈধ জুয়া খেলা চলছে। আর খেলা চালাতে দিন ভাগ করে ইজারা নিয়েছে কোর্ট মালিকেরা। আর এসবই হচ্ছে পুলিশের নাগের ডগায় !

পাহাড়তলীতে জমজমাট জুয়ার আসর,দেখার কেউ নেই (পর্ব-০১)!

অত্র এলাকার বাসিন্দা বশর সহ বেশ কয়েকজন এ সব জুয়ার কোট পরিচালানা করছে বলে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায় । অনুসন্ধানে জানা যায় পাহাড়তলি থানাধীন সিডিএ মার্কেট এলাকায় রসুলপুর কলোনী রেল লাইন এর পশ্চিম পাশে একটি বাঁশের পেন্ডেল এর নিচে চলছে অবাধ জুয়াখেলা। সেখানে অত্র এলাকার বাসিন্দা বশর দিনের পর দিন জুয়ার আসর বসিয়ে মানুষকে বিপথে ঠেলে দিচ্ছে।

ওই আসরে চট্টগ্রামের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন পেশার কর্মজীবী থেক শুরু করে ছাত্ররা ভিড় জমাচ্ছে। জুয়া পরিচালনাকারীরা কোন ভাবেই কাউকে পরোয়া করে না। বরং দম্ভোক্তি প্রকাশ করে বলে বেড়ায় সব আমরা ম্যানেজ করেছি।এদিকে গত কয়েকদিন সংবাদ কর্মীরা ছদ্মবেশে জুয়ার কোটে পৌছাতে গলদঘর্ম হতে হয়।সেখানে পৌছাতে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা রয়েছে। বাঁকে বাঁকে মানুষ পাহারা দিচ্ছে।

hostseba.com
পাহাড়তলীতে জমজমাট জুয়ার আসর,দেখার কেউ নেই (পর্ব-০১)!

সেখানে রয়েছে অনেক দামী দামী ব্র্যান্ডের গাড়ি। দেখে বোঝা যাচ্ছে অনেক নামি দামী লোক জুয়ার আসরে অংশ নিচ্ছে।

এদিকে জুয়ার কোট পরিচালক মোঃ বশরকে বিবিসিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ডটবিডি”র প্রতিনিধি উক্ত বিষয়ে জানতে ফোন করলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

বিষয়টি নিয়ে পাহাড়তলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাইনুর রহমান বিবিসিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ডটবিডি”র প্রতিনিধিকে জানান, জুয়া কোন প্রকারেই চলতে দেয়া হবে না,আমি সবে মাত্র এই থানায় যোগদান করলাম,আমি এই বিষয়ে জানতাম না,এখন আপনাদের মাধ্যমে জানলান এবং অতিশীঘ্রই আমি ব্যবস্থা নিচ্ছি বলে জানান।

অন্যদিকে ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিম বিবিসিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ডটবিডি”র প্রতিনিধিকে জানান, বারবারই প্রশাসনকে বলা হয়েছে কিন্তু কেউই এই ব্যাপারে পদক্ষেপ নিচ্ছেন নাহ বিদায় জুয়ার আসর অপ্রতিরোধ্যভাবে বাড়ছে ।

এলাকাবাসী এই জুয়া আসর বন্ধের জন্য কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন।

আপনার মতামত দিন
bbc-news-24-ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team