Categories
আইন-আদালত খুলনা-বিভাগ গণমাধ্যম জাতীয় লিড নিউজ সারাদেশে

খুলনায় ট্রাক-প্রাইভেটকার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৫ !

সেতু মুখার্জী,(বিশেষ প্রতিনিধি):- খুলনার খানজাহান আলী সেতুর (রূপসা সেতু) বাইপাস সড়কে ট্রাক ও প্রাইভেটকারের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৫জন নিহত হয়েছেন। রোববার রাত সোয়া ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে চারজন প্রাইভেটকারের যাত্রী এবং একজন পথচারী। নিহতদের মধ্যে একজনের নাম মাহমুদ হাসান বাবু। তার বাড়ি গোপালগঞ্জে। তাৎক্ষণিকভাবে অন্যদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

লবণচরা থানার ওসি শফিকুল ইসলাম জানান, রাত সোয়া ১১টার দিকে একটি প্রাইভেটকার রূপসা সেতু এলাকা থেকে আসছিল। অপরদিকে নগরীর জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে আরেকটি ট্রাক রূপসা সেতুর দিকে যাচ্ছিল। লবণচরা থানা এলাকার খাজুর বাগান অতিক্রম করার সময় মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তি ট্রাকের সামনে এসে পড়ে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাইভেটকারের সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকারের তিনযাত্রী ও দুই পথচারী নিহত হন।

Categories
আর্ন্তজাতিক গণমাধ্যম লিড নিউজ

আত্মঘাতী হামলায় ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ডের ২০ সদস্য নিহত!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ঃ আত্মঘাতী হামলায় ইরানের বিশেষায়িত সামরিক বাহিনী রেভল্যুশনারি গার্ডের অন্তত ২০ সদস্য নিহত হয়েছেন। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের বাসকে লক্ষ্য করে চালানো এ হামলায় আহত হয়েছেন আরো ১০ সদস্য।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা আইআরএনএ (ইরনা) জানিয়েছে, ইরানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে সিসতান-বেলুচিস্তান প্রদেশের মধ্যবর্তী স্থানে আত্মঘাতী গাড়ি বোমা হামলার ঘটনাটি ঘটানো হয়। পাকিস্তান সীমান্তের কাছাকাছি এলাকাটি সশস্ত্র ও মাদক চোরাচালানকারীদের নিয়ন্ত্রণে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম।

সংবাদ মাধ্যম জানায়, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের বহনকারী বাসটি লক্ষ্য করে হামলাকারীরা গাড়ি বোমা হামলা চালায়। এতে বিশেষায়িত বাহিনীর এতো সংখ্যক সদস্যের মৃত্যু হয়।

এদিকে টুইটারে হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি সংগঠন জাইশ আল-আদল।

হামলার এলাকাটি আফিম চোরাচালানের জন্য বিখ্যাত। সেখানে প্রায়ই ইরানের সরকারি বাহিনী ও বেলুচ বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মাদক চোরাচালানকারীদের সঙ্গেও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এর আগে জঙ্গি সংগঠনটি প্রধানত পাকিস্তান সীমান্তের কাছে সিস্থান-বেলুচিস্তান প্রদেশে বেশ কয়েকটি হামলা চালিয়েছে। হামলায় মূল লক্ষ্যবস্তু ছিলো নিরাপত্তা বাহিনী।

Categories
আর্ন্তজাতিক এক্সক্লুসিভ গণমাধ্যম লিড নিউজ সারাদেশে

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ডুডল তৈরি করেছে গুগল!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ঃ বিশ্ব ভালোবাসা দিবস (১৪ ফেব্রুয়ারি) উপলক্ষে বিশেষ ডুডল তৈরি করেছে গুগল। বরাবরের মতো এবারের ডুডলেও রয়েছে বৈচিত্র্য। ভ্যালেন্টাইনস যে উপলক্ষে এবারের গুগল ডুডলের ফিচারে একজোড়া সাপ, জোড়া মাকড়সা ও জোড়া গুবরে পোকার উপস্থিত দেখা যায়।

সার্চইঞ্জিন গুগল ডুডলে দেখা যায়, একজোড়া সাপ দু’দিক থেকে এসে একত্রে মিলিত হয়ে ‘ও’ অক্ষরটি তৈরি করে। এরপর দু’টি লেডিবাগ হাত মিলিত করে এবং মাকড়সা একত্রে হয়ে ভালোবাসা ছড়ায়। 

সচল অ্যানিমেশনের মাধ্যমে এই বিশেষ ডুডলটি বোঝায়, ভালোবাসা কিভাবে, কেমন আকৃতিতে মানুষের জীবনে ধরা দেয়। আর ভালোবাসার স্বাধীনতাকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে সবুজ পাতা দিয়ে এবং মাকড়সার জাল দিয়ে প্রতীকী অর্থে বলা হয়েছে ভালোবাসা জীবনভর আমাদের জড়িয়ে থাকে।

সাধারণত কোনো দিবসে, ঘটনায়, খ্যাতিমান কোনো ব্যক্তির কৃতিত্বকে উৎসর্গ করে গুগল তাদের হোম পেজে লোগোর পরিবর্তে বিশেষ ডুডল তৈরি করে। যার স্থায়িত্বকাল হয় চব্বিশ ঘণ্টা।

ডুডলগুলো সামাজিক মাধ্যমে বেশ আলোচিত হয়। বিগত বছরে সার্চইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস, একুশে ফেব্রুয়ারিসহ বিশেষ দিন ও ব্যক্তির কর্মের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বিভিন্ন ডুডল তৈরি করেছে।

গুগলের প্রথম ডুডল দেওয়া হয় ১৯৯৮ সালের ৩০ শে আগস্ট বার্নিংম্যান ফেস্টিভ্যালের দিন। যার ডিজাইন করেছিলেন গুগলের প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেইজ ও সার্গেই বিন। ওই ডুডলটি তৈরির কারণ ছিল মূলত গুগল ব্যবহারকারীদের তাদের অনুপস্থিতি সম্পর্কে একটি বার্তা দেওয়া।

Categories
অপরাধ আইন-আদালত গণমাধ্যম জাতীয় লিড নিউজ সারাদেশে সিলেট-বিভাগ

বাণিজ্যমেলায় পার্কিংস্থলের দখল নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষ,আহত-২

বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্ক ঃ সিলেটে বাণিজ্যমেলায় পার্কিংস্থলের দখল নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের দু’জন আহত হয়েছেন। ভাঙচুর করা হয়েছে তিনটি মোটরসাইকেল। মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১০টার দিকে নগরের শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সিলেট সিটি করপোরেশনের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম পাপ্পু ও নগরের টিলাগড় গ্রুপের ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ আহমদের মধ্যে মেলা মাঠের পার্কিং স্থলের দখল নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এতে দুই কর্মী আহত হয়েছেন। আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে এসএমপির এয়াপোর্ট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় উভয় পক্ষে ভাঙচুর করা ৩টি মোটরসাইকেল জব্দ করেছে পুলিশ।

সিলেট মহানগর পুলিশের (এসএমপি) বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম শাহাদাত হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে বলেন, মেলা মাঠ সংলগ্ন পার্কিংয়ের দখল করে বসার আধিপত্য নিয়ে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে। এ ঘটনায় দু’জন আহত হয়েছেন। তবে তাৎক্ষণিক আহতদের নাম পাওয়া যায়নি। ঘটনাস্থল থেকে ভাঙচুর করা ৩টি মোটরসাইকেল জব্দ করা হলেও কাউকে আটক করা যায়নি। 

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত ডিসেম্বরে নগরীর শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে করা মেলা শেষ হয়েছে ডিসেম্বরে। ফের এক মাসের ব্যবধানে খেলার মাঠে মেলার আয়োজন করেছে সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স। কিন্তু খেলার মাঠে মেলা করার বিপক্ষে গিয়ে নগরে মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ব্যবসায়ী ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এনিয়ে আগে থেকেই উত্তেজনা চলে আসছিল।

Categories
আইন-আদালত গণমাধ্যম জাতীয় রংপুর-বিভাগ লিড নিউজ শিক্ষা সারাদেশে

ট্রাকচাপায় মেডিকেল ছাত্রী তানিজা হায়দার নিহত!

বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্ক ঃ পাবনা সদর উপজেলায় ট্রাকচাপায় তানিজা হায়দার (২২) নামে এক মেডিকেল ছাত্রী নিহত হয়েছে।বুধবার সন্ধ্যায় পাবনা শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সংলগ্ন মহেন্দ্রপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত তানিজা রাজশাহী জেলার লক্ষীপুর কাঁচাবাজার এলাকার শাম্মাক হায়দারের মেয়ে। তিনি পাবনা মেডিকেল কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

দুর্ঘটনায় তানিজার বন্ধু ইমরান চৌধুরী (২৪) আহত হয়েছে। নওগাঁর মহাদেবপুর এলাকার ছেলে ইমরান পাবনা মেডিকেল কলেজের পঞ্চম বর্ষের ছাত্র।

তানিজার সহপাঠীদের বরাত দিয়ে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল হক জানান, বাঙালির চিরন্তন উৎসব বসন্তবরণ উপলক্ষে তানিজা বুধবার বিকেলে বন্ধুর সঙ্গে মোটরসাইকেলে ঘুরতে বের হয়। ঘোরাঘুরি শেষে বাসায় ফেরার পথে সন্ধ্যা ৭টার দিকে পাবনা বাস টার্মিনাল এলাকা একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ধাক্কায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়েন তানিজা ও তার বন্ধু ইমরান। এ সময় পেছন থেকে দ্রুতগতির একটি ট্রাক তানিজার ওপর দিয়ে চলে গেলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার পর ট্রাকটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক ও তার সহকারী (হেলপার) পালিয়ে গেছে।

এদিকে তানিজার মৃত্যুর খবরে পাবনা মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে সহপাঠীদের অনেকেই কান্নায় ভেঙে পড়েন। তানিজার বাবা রাজশাহীতে বন বিভাগে কর্মরত আছেন বলেও জানান তার সহপাঠীরা।সূত্রঃসমকাল

Categories
অপরাধ আইন-আদালত গণমাধ্যম চট্টগ্রাম-বিভাগ জাতীয় লিড নিউজ সারাদেশে

চট্টগ্রামে বাড়ছে তালাকের প্রবণতা !

বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্ক ঃ চট্টগ্রামে দিন দিন বাড়ছে বিবাহ বিচ্ছেদ এর প্রবণতা। মুসলিম পারিবারিক আইন অধ্যাদেশের ৭(১) ধারায় দিনে ১২টি তালাকের নোটিশ জমা হয়েছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে (চসিক)। স্বামী-স্ত্রী দুইপক্ষের শুনানি শেষে প্রতিদিন কার্যকর হয়েছে ৩টি। ২০১৮ সালের চিত্র এটি।

একের পর এক সুখের সংসারে আগুন লাগছে। বিচ্ছেদের অনলে পুড়ে ভেঙে খান খান হচ্ছে একেকটি পরিবার। ভাঙা পরিবারের শিশুরা হারাচ্ছে আনন্দময় শৈশব। কিন্তু কেন?

গণমাধ্যমকে বলেন, স্বামী-স্ত্রীর মাদকাসক্তি, যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন, পরকীয়া, শারীরিক অক্ষমতা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, বিভিন্ন অ্যাপস, স্মার্টফোনের অপব্যবহার, ভুল বোঝাবুঝি, সন্দেহ প্রবণতা, স্বামী প্রবাসী হলে স্ত্রীর শ্বশুর পক্ষের লোকজনের অসহযোগিতা, সন্তান না হওয়া বা ছেলে সন্তান না হওয়া, একাধিক বিয়ের প্রবণতা, দম্পতিদের মধ্যে পরস্পরের প্রতি সহনশীলতার অভাব, ধর্মীয় মূল্যবোধের অবক্ষয় ইত্যাদি কারণে সংসার ভাঙছে। অনেক সময় তালাকের আবেদনে উদ্দেশ্যমূলকভাবে মনগড়া, মিথ্যা অভিযোগ করা হয়। যা উভয়পক্ষের ফাটল আরও বড় করে।

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা দেখেছি স্বামীরা শুধু নয়, স্ত্রীরাও মাদকাসক্ত হওয়ায় সংসার ভেঙেছে। তবে তা ১ শতাংশ। চট্টগ্রামে আরেকটি জিনিস দেখেছি, একদিকে কনেপক্ষকে বিয়েতে ২ হাজার, ১০ হাজার মানুষকে খাওয়াতে বাধ্য করা হয়। আবার কনেপক্ষ ২০-৩০ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে কাবিননামায়। একধরনের অসুস্থ প্রতিযোগিতা চালু হয়েছে। শেষপর্যন্ত বিয়ে টিকছে না।  

সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত নগরের ১৬টি থানার ৪১টি ওয়ার্ড থেকে তালাকের নোটিশ জমা পড়েছে ৪ হাজার ৪১৯টি। আগের বছরে নিষ্পত্তি না হওয়া ছিল ১ হাজার ৯৫টি। সব মিলে দাঁড়ায় ৫ হাজার ৫০৬টি। এর মধ্যে উভয় পক্ষের শুনানির পর কার্যকর হয়েছে ১ হাজার ৩৫টি। আগের বছর যা ছিল ৯৫৮টি।

শুনানিকালে উভয় পক্ষের সম্মতিতে তালাকের নোটিশ প্রত্যাহার করে নিয়েছে ১৩৪টি। সিটি করপোরেশন এলাকায় স্বামী-স্ত্রী কোনো পক্ষের ঠিকানা না থাকায় খারিজ হয়েছে ১২১টি। বর্তমানে ৯০ দিন অতিক্রান্ত সূত্রে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা ২ হাজার ৯৩৩টি।

সূত্র জানায়, নগরের ১৬ থানাকে দুইটি ভাগ করে সালিসি মামলাগুলো নিষ্পত্তি করা হয়। এর মধ্যে আদালত-১ এর অধীনে রয়েছে কোতোয়ালী, সদরঘাট, চকবাজার, পাঁচলাইশ, চান্দগাঁও, বাকলিয়া, বায়েজিদ ও কর্ণফুলী থানা। আদালত-২ এর অধীনে রয়েছে খুলশী, ডবলমুরিং, হালিশহর, আকবর শাহ, ইপিজেড, বন্দর, পাহাড়তলী ও পতেঙ্গা থানা।  

স্বামী-স্ত্রীর দাম্পত্য কলহের ঘটনায় কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে তালাক কমানো উচিত মন্তব্য করে অ্যাডভোকেট জিনাত সোহানা চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, কারণে-অকারণে অনেক সময় তুচ্ছ ঘটনায়ও তালাক নোটিশ হচ্ছে। ফলে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে তালাকের ঘটনা। মধ্যবিত্ত পরিবারে অভাবের কারণে যেমন যৌতুকের দাবি মেটাতে পারছে না অভিভাবকেরা তেমনি উচ্চবিত্ত পরিবারে ‘ইগো প্রবলেম’ প্রকট আকার ধারণ করেছে। রয়েছে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ও পরমতসহিষ্ণুতার অভাব।