মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
পাবনার সাঁথিয়ায় ‘অপহৃত’ ছাত্রী ১১ দিনেও উদ্ধার হয়নি!

পাবনার সাঁথিয়ায় ‘অপহৃত’ ছাত্রী ১১ দিনেও উদ্ধার হয়নি!

পাবনার সাঁথিয়ায় ‘অপহৃত’ ছাত্রী ১১ দিনেও উদ্ধার হয়নি!
পাবনার সাঁথিয়ায় ‘অপহৃত’ ছাত্রী ১১ দিনেও উদ্ধার হয়নি!
Advertisements

ফারুক হোসেন,পাবনা প্রতিনিধিঃ পাবনার সাঁথিয়ায় এক কলেজ ছাত্রীকে ১১ দিন পরও উদ্ধার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, যাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে পরিবারের অভিযোগ।

গত ২৮ জানুয়ারি সাঁথিয়া মহিলা কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে পাশের জেলা সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার চিথুলিয়া গ্রামের আব্দুল্লাহ (২০) মেয়েটিকে অপহরণ করে বলে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।

সাঁথিয়া মহিলা কলেজের একাশদ শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর বাবা পুলিশের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ করেছেন। তবে উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

মেয়েটির বাবা অভিযোগে বলেন, কলেজে যাতায়াতের সময় দীর্ঘদিন ধরে আলহাজ আলীর ছেলে আব্দুল্লাহ মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। মেয়েটি তার প্রস্তাবে সারা না দেওয়ায় গত ২৮ জানুয়ারি কলেজ থেকে ফেরার পথে মেয়েটিকে জোরপূর্বক সিএনজি অটোরিকশায় তুলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

৩০ জানুয়ারি মেয়েটির বাবা সাঁথিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর শাহজাদপুর থানা পুলিশ ওই বখাটের ভাই বিপুলকে গ্রেপ্তার করে। তবে মূল আসামিকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। মেয়েটিও উদ্ধার হয়নি।

hostseba.com

মেয়েটির বাবা সাংবাদিকদের বলেন, “আমি আমার মেয়েকে সুষ্ঠুভাবে ফিরে পেতে চাই। এজন্য ওই ছেলের বাবা-মা পরিবারসহ পুলিশ ও র‌্যাবের সহায়তা চেয়েছি, তবুও আমার মেয়েকে ফিরে পাইনি। মেয়েকে ফিরে পেতে আমি প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা চাই।”

এ বিষয়ে বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ জিল্লুর রহমান বলেন, “যেহেতু আসামির বাড়ি পাশের জেলায় তবুও আমরা পুলিশের পক্ষ থেকে মেয়েটিকে উদ্ধার ও আসামিকে গ্রেপ্তারের সর্বাত্মক চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। একটু সময় সাপেক্ষ ব্যাপার, অচিরেই আমরা সফল হব।”

ইতিমধ্যে সাঁথিয়া থানা ও শাহজাদপুর থানা পুলিশ কাজ শুরু করেছে। মেয়েটির পরিবার পুলিশের অবহেলা করার যে কথা বলেছেন তা সঠিক নয় বলেও দাবি তার।

আপনার মতামত দিন
bbc-news-24-ads

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements

অনলাইন ভোটে অংশগ্রহন করুন




Advertisements

Our English Site

© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team