বৃহস্পতিবার, ২৭ Jun ২০১৯, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের নিউজে আপনাকে স্বাগতম... আপনি ও চাইলে আমাদের পরিবারের একজন হতে পারেন । আজই যোগাযোগ করুন ।
ব্রেকিং নিউজ :
বিবিসিনিউজ২৪ এর ইফতার ও দোয়া মাহফিল সম্পন্ন থাই ব্যবসায়ী মেয়ের পাত্র খুঁজছেন, দেবেন লাখো ডলার রিফাত হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আটক ১ সমীকরন পাল্টে দিচ্ছে পাকিস্থান, টাইগারদের ওপর বাড়াল চাপ সুভাষ মল্লিক সবুজকে মাথায় রড দিয়ে আঘাত করে সন্ত্রাসীরা কোথায় গেল মানবতা, স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা ইউসুফ চৌধুরী আর নেই বাংলাদেশ পুলিশ উইমেন নেটওর্য়াক (BPWN) বার্ষিক ট্রেনিং কনফারেন্স অনুষ্ঠিত অধ্যক্ষের সহযোগীতায় রোজিনার দায়িত্ব নিল সন্দ্বীপ ১ গ্রুপ! চট্টগ্রামে অজ্ঞান পার্টির ২ সদস্য আটক চট্টগ্রামে ২৪০০ পিস ইয়াবাসহ আটক ৩ জামালপুরে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী সমাবেশ
আকবরশায় জুতা চুরি নিয়ে দোকান ভাংচুর,নারীসহ আহত – ৩

আকবরশায় জুতা চুরি নিয়ে দোকান ভাংচুর,নারীসহ আহত – ৩

আকবরশায় জুতা চুরি নিয়ে দোকান ভাংচুর,নারীসহ আহত – ৩
আকবরশায় জুতা চুরি নিয়ে দোকান ভাংচুর,নারীসহ আহত – ৩
Advertisements

আকবরশায় জুতা চুরি নিয়ে দোকান ভাংচুর

নারীসহ আহত – ৩

বিবিসিনিউজ২৪ ডেস্ক ঃ চট্টগ্রাম নগরীর ৯ নং ওয়ার্ড আকবরশাহ থানাস্থ শহীদ লাইন এলাকায় মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সুমন নামের গরিব অসহায় এক ব্যাক্তির মুদির দোকানে হামলা ও ভাংচুর করা হয় এবং এতে দোকান মালিক সহ দুই জন আহত হয়।এলাকার প্রভাবশালী বিএনপি নামধারি আবদুল খালেক ও তার পুত্র মোঃ নাজমুলের ছত্রছায়ায় এই হামলা করা হয় বলে জানায় মুদির দোকানের মালিক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সুমন।গতকাল শুক্রবার ৫ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭ টার দিকে এই ঘটনা শহীদ লাইন এলাকায় ঘটে।

দোকান মালিক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বিবিসিনিউজ২৪ কে বলেন,আমার দোকানের পাশে ছোট ছোট বাচ্চারা খেলাধুলা করার সময় একে অপরের জুতা লুকিয়ে রাখা হয়।জুতা চুরির সাথে আমার কোন সম্পৃক্ততা ছিল না।কিন্থু অযথা আবদুল খালেক ও তার ছেলে মো নাজমুল তার সহপাটিদের সাথে নিয়ে অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে আমার মুদির দোকানে হামলা ও ভাংচুর চালায়,এতে তারা আমার দোকানে ঢুকে ক্যাশবাক্স থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়।আমি আকবরশাহ থানায় একটি অভিযোগ করেছি যারা আমার দোকানে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে তাদের আটক করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্থি ও আমার ক্ষতিপূরণ উদ্ধার করার জন্য।

এ বিষয়ে আকবরশাহ থানার এ এস আই মো বদিউল আলমের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বিবিসিনিউজ২৪ কে বলেন আসামিদের ব্যাপারে আমি অতিশীঘ্রই ব্যবস্থা নিচ্ছি।যারা মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের দোকানে হামলা চালিয়েছে তারা হল মরহুম আরব আলী সরদারের পুত্র মো আবদুল খালেক(৫০),মোঃ আবদুল খালেকের পুত্র মোঃ নাজমুল ইসলাম(২২),মোঃ গনি সওদাগরের পুত্র মোঃ- সোহাগ(৩৫),মোঃ আবদুল হাসেমের পুত্র মোঃ বাবু (২৮),মোঃ বাবুলের পুত্র মোঃ সুজন(৩০) সহ অজ্ঞাত বেশ কয়েকজন জড়িত ছিল বলে বিবিসিনিউজ২৪ কে জানান।

 

আপনার মতামত দিন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

Advertisements

Comments are closed.

Advertisements



Advertisements
© All rights reserved © 2017-27 Bbcnews24.com.bd
Theme Developed BY ANI TV Team