শেখ হাসিনার দূরদর্শীতায় লাখ লাখ রোহিঙ্গা প্রাণ বাচিয়েছে

0
459
শেখ হাসিনার দূরদর্শীতায় লাখ লাখ রোহিঙ্গা প্রাণ বাচিয়েছে
শেখ হাসিনার দূরদর্শীতায় লাখ লাখ রোহিঙ্গা প্রাণ বাচিয়েছে

শেখ হাসিনার দূরদর্শীতায় লাখ লাখ রোহিঙ্গা প্রাণ বাচিয়েছে

 

মুহাম্মদ শাহেদ,বিবিসিনিউজ২৪ ডেস্ক: মায়ানমারে চলমান জাতিগত সহিংসতা ও জগন্যতম গণহত্যার হাত থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু শিবির পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। পরিদর্শন কালে মায়ানমারে চলমান সহিংসতা নিয়ে রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেন তিনি। বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া শরনার্থী শিবির পরিদর্শণকালে রোহিঙ্গাদের সুবিধা অসুবিধার কথা জানতে চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার যে কোন মূল্য রোহিঙ্গাদের জীবন বাঁচাতে বদ্ধ পরিকর বলে মন্তব্য করেন ব্যারিস্টার নওফেল।

আজ বালুখালীর অনিবন্ধিত ক্যাম্প পরিদর্শন করতে গিয়ে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির সাথে আলাপকালে ব্যারিস্টার নওফেল বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য সর্বোচ্চ করণীয় ও পদক্ষেপ নিতে  সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রনালয় ও দলীয় সংগঠনকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রেখে দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন। এ সময় তিনি বলেন বাংলাদেশ আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ত্রান বিতরণে সরকার শতভাগ সচ্ছতা নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে সেনাবাহিনীর সহযোগিতা গ্রহণ করেছে। সরকারের পক্ষ থেকে জমি বরাদ্দ করে রোহিঙ্গাদের থাকার জন্য ঘর নির্মান করা হচ্ছে। বহিবিশ্বের উন্নত দেশগুলো যখন শরনার্থী আশ্রয় না দেওয়ার মতো অমানবিক সিদ্ধান্ত  গ্রহন করছে তখন বাংলাদেশের মতো ক্ষুদ্র  রাষ্ট্র তার প্রতিবেশী দেশের এত বিশাল জনগোষ্ঠিকে নিজেদের ভূমিতে আশ্রয় দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব বাংলাদেশের মানচিত্র পেড়িয়ে বহিবিশ্বে সমাদৃত হয়েছে মন্তব্য করে এ সময় তিনি বলেন, দীর্ঘ কয়েক দশকের রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে বিশ্বসভা যখন সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছে তখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের অধিবেশনে দাঁড়িয়ে মায়ানমারের জাতিগত সংকট নিরসনে ৬ দফা দাবী উত্তাপন করেছে। যার মধ্যে কফি আনান কমিশনের প্রস্তাবসমূহ পূর্ন বাস্তবায়ন এবং সেই সাথে রোহিঙ্গাদের সেদেশে ফিরিয়ে নিয়ে জাতিসংঘের উদ্যোগে ‘সেইফ হোম’ প্রতিষ্ঠার আহবান রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে আশার আলো জুগিয়েছে।

বালুখালীর অনিবন্ধিত ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল পরিদর্শনে যান থ্যাংখালী অনিবন্ধিত ক্যাম্প ৬ এ আশ্রয় গ্রহণ করা রোহিঙ্গাদের পাশে। এই ক্যাম্পে চট্টগ্রাম বিজয় মেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র আলহাজ এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সার্বিক সহযোগিতায় রোহিঙ্গাদের জন্য সপ্তাহব্যাপী চলা ‘লঙ্গরখানা’ এর ত্রান বিতরন অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহন করেন ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ত্রান বিতরণ শেষে উপস্থিত গণমাধ্যমের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মানবিক সংকট ও দূর্যোগ মোকাবেলায় সরকার ও প্রশাসনের পাশাপাশি বেসরকারী উদ্যোগে বাংলাদেশের মানুষ রোহিঙ্গাদের পাশে যেভাবে সাহায্যর হাত বাড়িয়ে দিয়েছে তা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। জাতিসংঘ অধিবেশনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে বিশ্বনেতাদের দেয়া বক্তব্য বিশ্লেষণ করলে বাঙ্গালী হিসাবে আমরা গর্বিত হয়।

বর্তমানে শরনার্থী ক্যাম্পে অবস্থানরত নারী শিশুদের জ্বর, ডায়রিয়া নির্মূলে সরকার কাজ করছে বলে এসময় জানান তিনি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগ আহবায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু, যুগ্ম আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকা, ফরিদ মাহমুদ, মাহবুবুল হক সুমন, নগর যুবলীগ সদস্য এস এম সাঈদ সুমন, নূরুল আনোয়ার, দেলোয়ার হোসেন দেলু, রবিউল হোসেন, সাইফুল ইসলাম, আশরাফুল গণি। উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু, সাধারন সম্পাদক নূরুল আজিম রনি, চবি ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি সুজন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সদস্য আব্দুর রহিম সামীম সহ প্রমুখ।