মায়ানমার অস্ত্রবিরতির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করল

0
1418
মায়ানমার অস্ত্রবিরতির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করল-BBCNEWS24
মায়ানমার অস্ত্রবিরতির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করল-BBCNEWS24

মায়ানমার অস্ত্রবিরতির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করল

বিবিসিনিউজ২৪,ডেস্কঃ রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের সংগঠন আরাকান রোহিঙ্গা সেলভেশন আর্মি’র (এআরএসএ) অস্ত্রবিরতির ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করেছে মায়ানমার। রবিবার দেশটির সরকার বলেছে, তারা সন্ত্রাসীদের সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা করবে না।সেনা অভিযানে সৃষ্ট মানবিক সংকট থেকে উত্তরণে ত্রাণ সহায়তাকারী সংস্থাগুলোকে কাজ করতে সুযোগ দেওয়ার জন্য রবিবার থেকে এআরএসএ এক মাসের অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দেয় এআরএসএ। গত ২৪ অগাস্ট রাতে একযোগে রাখাইনের ৩০টি পুলিশ পোস্ট ও একটি সেনা ঘাঁটিতে হামলা করে এই বিদ্রোহী গোষ্ঠী।

এরপর রাজ্যের রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে সেনাবাহিনী অভিযান শুরু করলে বাংলাদেশ অভিমুখে নতুন করে রোহিঙ্গাদের ঢল নামে। এরইমধ্যে তিন লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকেছে বলে ধারণা করছে জাতিসংঘ।পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা বলছেন, মায়ানমারের সেনাবাহিনী ও পুলিশ নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যা করছে, জ্বালিয়ে দিচ্ছে রোহিঙ্গাদের ঘর-বাড়ি।অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দিয়ে এআরএসএ এক বিবৃতিতে এই মানবিক সংকটের শিকার সবাইকে ধর্ম-গোত্র নির্বিশেষে সহায়তা দিতে ত্রাণ সহায়তাকারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

অস্ত্র বিরতির ঘোষণায় মায়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির এক মুখপাত্র টুইটারে বলেছেন, সন্ত্রাসীদের সঙ্গে আলোচনা করার মতো কোনো নীতি নেই আমাদের।মায়ানমারের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির নেত্রী অং সান সু চি নেতৃত্বাধীন সরকার এআরএসএ’কে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। রাখাইনে সেনা অভিযান নিয়ে মায়ানমার সরকার বলছে, সন্ত্রাসী সংগঠন এআরএসএ’র বিরুদ্ধে নির্মূল অভিযান চালাচ্ছে তারা।